অধ্যাপক ছেড়ে উপসচিব

নিজস্ব প্রতিবেদক

এডুকেশন বাংলা

প্রকাশিত : ০৮:৫৭ পিএম, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ বুধবার | আপডেট: ০৭:৫৮ পিএম, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ বৃহস্পতিবার

আইসিটি ল্যাব উদ্বোধন করছেন অধ্যক্ষ অধ্যাপক এ কে এম রেজাউল করিম

আইসিটি ল্যাব উদ্বোধন করছেন অধ্যক্ষ অধ্যাপক এ কে এম রেজাউল করিম

শিক্ষাক্যাডারের শীর্ষ পদ ‘অধ্যাপক’ পদ ছেড়ে প্রশাসন ক্যাডারের মধ্যম সারির কর্মকর্তা ‘উপসচিব’ পদে যাচ্ছেন এ কে এম রেজাউল করিম রেজাউল করিম। তিনি বিসিএস সাধারণ শিক্ষা ক্যাডারের সদস্য, বাংলা বিষয়ের অধ্যাপক। বর্তমানে রাজধানীর মোহাম্মদপুর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ।

শিক্ষা ক্যাডারের শীর্ষ পদ ছেড়ে উপসচিব পদে যাওয়া নিয়ে নানা প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।   এই দক্ষ অধ্যাপক চলে গেলে শিক্ষায় কিছূটা হলেও ক্ষতি হবে। অনেক ভক্ত রয়েছেন তার। শিক্ষার মান উন্নয়নে তার ভূমিকা রাখার সুযোগ ছিল বলে মনে করেন শিক্ষা ক্যাডারের অনেক সদস্য। 

প্রায় তিন একর জায়গা নিয়ে ১৯৬৫ সালে প্রতিষ্ঠিত এ কলেজটি এতদিন ঢাকা গভর্নমেন্ট কমার্শিয়াল ইনস্টিটিউট নামে পাঠদান করে আসছিল। সরকার এক আদেশে মোহাম্মদপুর সরকারি কমার্শিয়াল ইনস্টিটিউটসহ দেশের ১৬টি কমার্শিয়াল ইনস্টিটিউটকে সরকারি কলেজে রূপান্তর করে।  এই কলেজে দীর্ঘদিন ধরে দক্ষতার সাথে অধ্যক্ষের দায়িত্ব পালন করেন এ কে এম রেজাউল করিম। এ কারণে তার বেশ সুনামও রয়েছে।

এর আগেও ওসমান ভুইয়া নামের একজন অধ্যাপক উপসচিব পদে যোগ দিয়েছিলেন।  

শিক্ষাসহ  বিভিন্ন ক্যাডারের মোট ৩৯১ জন কর্মকর্তাকে সরকারের উপসচিব হিসেবে পদোন্নতি দিয়ে মঙ্গলবার রাতে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। এর মধ্যে বি সি এস সাধারণ শিক্ষা ক্যাডারের ১৪ জন কর্মকর্তা। নিয়ম অনুযায়ী প্রশাসন ক্যাডারের ৭৫ শতাংশ কর্মকর্তাকে উপসচিব করা হয়। অন্য ক্যাডারের ২৫ শতাংশ কর্মকর্তা এ পদে পদোন্নতি পান।