আরএসএস–এর স্কুলে হিন্দুদের চেয়ে এগিয়ে মুসলিম ছাত্ররা!

নিজস্ব প্রতিবেদক

এডুকেশন বাংলা

প্রকাশিত : ০৫:১৮ পিএম, ২৫ জুলাই ২০১৯ বৃহস্পতিবার

ভারতে উগ্র হিন্দুপন্থী নামে পরিচিত সংগঠন আরএসএস। আরএসএস-পরিচালিত স্কুলগুলোতে পড়াশুনা করছে অনেক মুসলিম ছাত্রছাত্রী। এই স্কুলগুলোতে মুসলিম ছাত্রছাত্রীরা নিজেদের ক্লাসে শীর্ষস্থান অর্জন করেছে। ভারতের রাজস্থান রাজ্যে আরএসএস পরিচালিত স্কুলগুলোর ফলাফলে এমনটাই দেখা গেছে।

রাজস্থান রাজ্যে আরএসএস-এর যে কয়টি স্কুল রয়েছে সেখানে পড়াশোনা করে ৪৫১৩ জন মুসলিম ছাত্রছাত্রী। এদের মধ্যে বেশিরভাগই দশম এবং দ্বাদশ শ্রেণির বোর্ডের পরীক্ষায় ৯০ শতাংশ নম্বর পেয়েছে।

রাজস্থানের জোনাল সহকারী সচিব সুরেশ ওয়াধওয়া জানান, বিদ্যা ভারতী নামের একটি স্কুল থেকে দ্বাদশ শ্রেণির বোর্ডের পরীক্ষায় ৯৪.‌২০ শতাংশ নম্বর পেয়ে সারা অঞ্চলে প্রথম হয়েছে সিমরন বানু। এবার সে নিটের প্রস্তুতি নিচ্ছে। আবার এভিএম সিনিয়র সেকেন্ডারি স্কুলে দশম শ্রেণির পরীক্ষায় ৮৮.‌৩ শতাংশ নম্বর পেয়েছে সিমরানের বোন সীমা বানু।

এদিকে মেয়েদের সাফল্যের জন্য স্কুলের শিক্ষক–শিক্ষিকাসহ সব কর্মীদেরই কৃতিত্ব দিয়ে সিমরনদের মা রাজ বানু বলেছেন, নার্সারি থেকেই তারা মেয়েদের স্কুলে পাঠিয়েছেন।

সিমরনের স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা জানান, তাদের স্কুলে ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে কোনও ধর্মীয় ভেদাভেদ নেই।

সুরেশ ওয়াধওয়া বলছেন, দৌসাতেই আরএসএস পরিচালিত স্কুলে মুসলিম ছাত্রছাত্রীদের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি, মোট ৫৮১ জন। চুরুতে ৫৪০, আলওয়ারে ২৬৯ ঝুনঝুনুতে ২৬৭, শিকরে ১৫৪, সোয়াই মাধোপুরে ১০৬ এবং ভরতপুরে ১৮৫ জন মুসলিম ছাত্রছাত্রী আছে। জয়পুরে এ বছর ১২১৮ জন ছাত্রীসহ মোট ৩১৫৩ মুসলিম ছাত্রছাত্রীর নাম নথিভুক্ত হয়েছে। এ ছাড়া দুজন খ্রিস্টান ছাত্রও রয়েছে।

সূত্র : আজকাল