হামলা-মামলার বিষয়ে ইইউ’র প্রতিনিধিকে অবহিত করলো কোটা আন্দোলনকারী

নিজস্ব প্রতিবেদক

এডুকেশন বাংলা

প্রকাশিত : ০৮:৪৬ পিএম, ১২ জুন ২০১৯ বুধবার | আপডেট: ০৮:৪৬ পিএম, ১২ জুন ২০১৯ বুধবার

ঢাকায় সফররত ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) মানবাধিকার বিষয়ক প্রতিনিধি দলের সাথে সাক্ষাত করেছেন বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র পরিষদ ও কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতারা। বুধবার দুপুর ১টার দিকে ঢাকার ইউরোপীয় ইউনিয়ন দূতাবাসে এই সাক্ষাত অনুষ্ঠিত হয়। সাক্ষাতের সময় নেতারা কোটা সংস্কার আন্দোলনের শুরু থেকে এখন পর্যন্ত নেতাদের উপর হামলা-মামলা এবং ডাকসু নির্বাচনসহ সার্বিক বিষয় ইইউ’র মানবাধিকার প্রতিনিধি দলকে জানান।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের ডেস্ক এন্ড পলিসি অফিসার (বাংলাদেশ) মাইকেল সাফিয়ানিক নেতৃত্বে ইইউ প্রতিনিধি দলের সাথে এ সাক্ষাতে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র পরিষদ ও কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আহ্বায়ক হাসান আল মামুন, যুগ্ম আহ্বায়ক ও ডাকসু ভিপি নূরুল হক নুর, রাশেদ খান, বিন ইয়ামিন মোল্লা ও স্বতন্ত্র জোটের ডাকসুর ভিপি প্রার্থী অরণি সেমন্তি।


বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র পরিষদ ও কোটা সংস্কার আন্দোলনের আহ্বায়ক হাসান আল মামুন নয়া দিগন্তকে বলেন, আপনারা জানেন, রোহিঙ্গা ইস্যুতে ইউরোপীয় ইউনিয়নের মানবাধিকার বিষয়ক একটি প্রতিনিধি দল সম্প্রতি বাংলাদেশে এসেছে। ইস্যুতে তারা কক্সবাজারে রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করেছে। রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে তারা এখন মীয়ানমারে আছে। এই প্রতিনিধি দলের পক্ষ থেকে আমাদের ডাকা হয়েছিল। ওই প্রতিনিধি দলের একটি অংশের সাথে আমরা সাক্ষাত করেছি।

তিনি বলেন, কোটা আন্দোলনের শুরু থেকে এখন পর্যন্ত আমাদের উপর হামলা, আমাদের বিরুদ্ধে যেসব মামলা আছে; মামলাগুলো কেন দেয়া হয়েছে এবং ডাকসু নির্বাচনে কী হয়েছে সার্বিক বিষয়গুলো নিয়ে তারা জানতে চায়। মানবাধিকারের অবস্থা, আমরা কীভাবে নাজেহালের শিকার হচ্ছি, আমরা কীভাবে বাঁধার শিকার হচ্ছি; পরপর আমাদের উপর হামলা হচ্ছে এসব বিষয় উঠে এসেছে। কোথাও আমরা বিচার পাচ্ছি না-এসব বিষয়গুলোই তারা জানতে চেয়েছিল। আমরা তাদের সবকিছু বর্ণনা করেছি।

এডুকেশন বাংলা/একে