মঙ্গলবার ২০ আগস্ট, ২০১৯ ০:৩৭ এএম


'কেরানি বানানোর এই শিক্ষা ব্যবস্থা সাগরে ফেলা দরকার'

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১০:৪০, ২৬ এপ্রিল ২০১৯  

দেশের চলতি শিক্ষাব্যবস্থা নিয়ে নিজের মতামত তুলে ধরতে গিয়ে ‘কেরানি বানানোর’ এই শিক্ষা ব্যবস্থাকে সাগরে ফেলে দেওয়া উচিত বলে মন্তব্য করেছেন মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

বৃহস্পতিবার বিকালে বাংলা একাডেমির আবদুল করিম সাহিত্যবিশারদ মিলনায়তনে শিক্ষা মন্ত্রণালয়, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ এবং একসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) আয়োজিত শিক্ষক সম্মেলনের সমাপনী পর্বে একথা বলেন তিনি।

‘শিক্ষিত বেকার’ দেশের জন্য নতুন চ্যালেঞ্জ উল্লেখ করে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, “আমাদের জন্য চ্যালেঞ্জ হয়ে গেছে যে, আমরা পৃথিবীর অন্যতম জনবহুল দেশ। আমাদের শতকরা ৬৫ ভাগ মানুষ ৩৫ বছর বয়সের মধ্যে।

“এটা প্রায়ই আমি বলে থাকি আমাদের বিদ্যমান শিক্ষাব্যবস্থা, এই শিক্ষাব্যবস্থাটা একদম ধইরা নিয়া বঙ্গোপসাগরে ফেলে দেওয়া উচিত। কারণ এটা প্রথম শিল্পযুগের শিক্ষাব্যবস্থা। প্রথম শিল্পযুগের কী প্রয়োজন ছিল? কেরানি বানানোর দরকার ছিল।”

উপস্থিত শিক্ষকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, “আপনারা নিজেরা যদি একটু চোখ বুঁজে চিন্তা করে দেখেন, যাদের লেখাপড়া শেখান তাদের টার্গেট একটাই- কেরানি হওয়াটাই টার্গেট। এবং সেই কারণে বাংলাদেশের বৃহত্তম সমস্যার নাম কর্মসংস্থান।”

প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষাব্যবস্থাকে ডিজিটাল যুগের উপযোগী করে তোলার পরামর্শ দিয়ে মোস্তাফা জব্বার বলেন, “শিক্ষাব্যবস্থা বঙ্গোপসাগরে ফেলে দিলেও মানুষগুলোকে তো আর ফেলে দেওয়া যায় না। ওরা তো আমাদেরই সন্তান, আমি জন্ম দিয়েছি সুতরাং আমার যে চ্যালেঞ্জটি রয়ে গেছে সেই চ্যালেঞ্জটি হচ্ছে যে, মানুষগুলো আমার রয়েছে, যে মানুষগুলো ভবিষ্যতের পৃথিবীতে বাংলাদেশে বাস করবে, সেই মানুষগুলোর জন্য আমি ডিজিটাল যুগের দক্ষতা দিতে পারব কি না।

“একটি সহজ উপায় হচ্ছে, আমরা প্রাতিষ্ঠানিকভাবে যে শিক্ষাটা প্রচলিত করে রেখেছি, সেই প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষাটাকে যদি আমরা ডিজিটাল যুগের উপযোগী করে দিতে পারি তাহলে প্রতিষ্ঠানগুলো যেগুলোতে আপনারা প্রতিনিধিত্ব করেন সেইখান থেকে যখন বেরিয়ে আসবে তাকে আমি আমার শিল্পযুগের মানুষ হিসেবে পেয়ে যাব।”


এডুকেশন বাংলা/এজেড

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর