শনিবার ২৪ অক্টোবর, ২০২০ ৭:১৩ এএম


'ইন্টারন্যাশনাল ইয়ুথ ডেভেলপমেন্ট সামিট ২০২০'অনুষ্ঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৬:২৬, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৬:৫২, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০

দক্ষতা উন্নয়নে যুবসমাজের ভূমিকা বিশ্বের কাছে তুলে ধরতে স্বপ্ন ইয়ুথ ডেভেলপমেন্ট অরগানাইজেশনের আয়োজনে প্রথমবারের দুই দিনব্যাপী ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠিত হলো ‘ইন্টারন্যাশনাল ইয়ুথ ডেভেলপমেন্ট সামিট ২০২০’।

১৮ ও ১৯ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত এ সামিটে অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ইসরাত করিম  প্রতিষ্ঠাতা, আমাল ফাউন্ডেশন, বাংলাদেশ,  শিরিন আক্তার শিলা মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ,  অনিক সরকার  সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার, গুগল ক্লাউড এসআরই,বাংলাদেশ, অর্চনা ভট্টাচার্য  উপদেষ্টা, ইন্টারন্যাশন্যাল ইয়ুথ কমিটি, ভারত, মোহিত খাজানচি জেইন আন্তর্জাতিক সনদপ্রাপ্ত পেশাবিষয়ক প্রশিক,নেপাল, মোলাওডি লিনফোর্ড প্রভাষক, জোহানসবার্গ বিশ্ববিদ্যালয়, দণি আফ্রিকা, প্রদীপ খাতিওয়াদা প্রধান, ইউনিসপায়ার আল্যায়েন্স , রনিত চ্যাটার্জী সহ-প্রতিষ্ঠাতা, রিকা ইন্ডিয়া, ভারত) এবং অভিনব চৌধুরী যুব নীতিমালা বিশেষজ্ঞ, নেপাল । সামিটের প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন `ইয়ুথ কার্নিভাল’-এর প্রতিষ্ঠাতা মো. শাহীনুর আলম জনি।

আন্তর্জাতিক এ সামিটে ৩৪ টি দেশ থেকে ৭৫০ জন ডেলিগেট, ১৪ টি দেশ থেকে ৫৬ জন ক্যাম্পাস এ্যাম্বাসেডর অংশগ্রহণ করেন এবং এই অরগানাজেশন- এর ৪০ জন স্বেচ্ছাসেবী অর্গানাইজার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

প্রথম দিনের অনুষ্ঠানমালায় অংশগ্রহণকারী দেশসমূহের পরিচিতি, অতিথিদের বক্তৃতাপর্ব এবং নির্ধারিত বিষয়ের উপর ৫ জন ডেলিগেটদের বক্তৃতাপর্ব দিয়ে সাজানো হয়। দ্বিতীয় দিনেও বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্যে ছিল বক্তৃতা পর্ব, বিভিন্ন দেশ থেকে অংশগ্রহণকারীদের পরিবেশনায় সাজানো বর্ণাঢ্য সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানমালা নাচ,গান,কবিতা আবৃত্তি, নাটক ও নির্ধারিত বিষয়ের উপর ৫ জন ডেলিগেটের বক্তব্য।

সামিটের  দ্বিতীয় দিনে চার ক্যাটাগরিতে  স্বপ্ন ইয়ুথ ডেভেলপমেন্ট অরগানাইজেশানের ফাউন্ডার ও সভাপতি মাসুমা মরিয়ম `স্বপ্ন ইয়ুথ লিডারশীপ এ্যাওয়ার্ড ২০২০`  বেস্ট ডেলিগেট স্পিকার এ্যাওয়ার্ড ও বেস্ট ক্যাম্পাস এ্যাম্বাসেডর এ্যাওয়ার্ড-এর নাম ঘোষণা করেন।

এ্যাওয়ার্ড প্রাপ্তরা হলেন-শিল্পোদ্যোগ ক্যাটাগরিতে বাংলাদেশ থেকে শামসিন আহমেদ, পরিবেশ রা ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ক্যাটাগরিতে ভারতের শ্রী নিভাসুলু এম.আর, শিক্ষা ক্যাটাগরিতে ভারতের প্রদীপ কুমার পান্ডে, স্বাস্থ্য ও কল্যাণ ক্যাটাগরিতে বাংলাদেশের মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম। এছাড়া প্রার্থী শাহ, জিভান জ্যোতি এবং সামালা ফানি কুমার– এই তিনজনের অবদানকে বিশেষভাবে উল্লেখ করা হয়। নতুন শিক্ষা পদ্ধতি হিসেবে অনলাইন শিক্ষা বিষয়ের উপর বেস্ট ডেলিগেট স্পিকার এ্যাওয়ার্ড পান উদেশিকা জয়শিকারা (শ্রীলঙ্কা) ও ভবিষ্যত প্রোপটে নতুন কাল্পনিক অবস্থার সাথে খাপ খাওয়ানো বিষয়ের উপর বেস্ট ডেলিগেট স্পিকার এ্যাওয়ার্ড পান মোছা.আমিনা বেগম (বাংলাদেশ)। বেস্ট ক্যাম্পাস এ্যাম্বাসেডর এ্যাওয়ার্ড অর্জন করেন আনমোনা প্রিয়দর্শিনী সুকন্যা (বাংলাদেশ) ও খাদিতজা মাহামাত হিসসেইন (চাদ)।




সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর