শনিবার ২৪ অক্টোবর, ২০২০ ৫:৪৪ এএম


৮ম গ্রেড নিয়ে শিক্ষকদের ক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ০৭:০৪, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০  

চাকরির ১০ পূর্তিতে বেসরকারি কলেজ শিক্ষকদের ৮ ম গ্রেড প্রদানের সিদ্ধান্ত নিয়ে  শিক্ষকরা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। শনিবার (২০ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় শহরের খলিফা পট্রি মসজিদ প্রাঙ্গণে ভোলা সদর উপজেলার কলেজ শিক্ষকদের নিয়ে অনুষ্ঠিত একটি সভায় এই ক্ষোভ প্রকাশ করা হয়। প্রভাষক আবুল কাশেমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন প্রভাষক তানভীর ইসলাম রনি , সিরাজ শিকদার , মোঃ জিয়াউদ্দিন ও মোঃ সালাউদ্দিন প্রমুখ।

এসময় বক্তারা বলেন, ২০১০ সনের এমপিও নীতিমালা অনুযায়ী ৯ম গ্রেডের একজন  শিক্ষক ৮ বছর পর ২২ হাজার টাকা স্কেল থেকে ৭ম গ্রেডে অর্থাৎ ২৯ হাজার টাকা স্কেল পেতেন। কিন্তু, ২০১৮ সনের নীতিমালায় অযৌক্তিক ভাবে তা বাদ দিয়ে ১০ বছর পর ৮ম গ্রেডে অর্থাৎ ২৩ হাজার টাকা স্কেল প্রদানের বিষয়টি অন্তর্ভুক্ত করা হয়।

পূর্বের নীতিমালা অনুযায়ী ৮ বছর পর বেতন স্কেল ৭ হাজার টাকা বৃদ্ধি পাওয়ার কথা থাকলেও বর্তমান নীতিমালা অনুযায়ী তা ১০ বছরে বাড়বে মাত্র ১ হাজার টাকা যা একটি বড়ো ধরনের বৈষম্য। তাই অবিলম্বে ২০১৮ এর বৈষম্য মূলক নীতিমালা সংশোধন করে ২০১০ নীতিমালা অনুযায়ী কলেজ শিক্ষকদের ৭ ম গ্রেড প্রদানের জোর দাবি জানানো হয় বৈঠকে।

বক্তারা এ সমস্যা সমাধানে উচ্চ আদালতে রিট পিটিশন দায়েরের পক্ষে মত দেন। পাশাপাশি রিট আবেদনের ইতিবাচক ও নেতিবাচক দিকগুলো সম্পর্কে শিক্ষকদের অবহিত করেন। পরবর্তী সভায় জেলা ব্যাপী ৮ ম গ্রেডের সকল ভিকটিম শিক্ষকদের উপস্থিত করার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর