শনিবার ২৪ আগস্ট, ২০১৯ ১৯:৫৮ পিএম


২৮ বছরে ডাকসু খাতে শিক্ষার্থীদের দেয়া ১০ কোটি টাকা কোথায়

প্রকাশিত: ১২:২৬, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯  

দেবদুলাল মুন্না : ২৮ বছর পর হতে যাচ্ছে ডাকসু নির্বাচন। এতদিন ডাকসু’র কর্মতৎপরতা বন্ধ থাকলেও শিক্ষার্থীদের ঠিকই দিতে হয়েছে ফি। প্রতিবছর ডাকসু ও হল সংসদ খাতে বরাদ্দ রাখা হয় প্রায় ১ কোটি টাকা। একজন শিক্ষার্থীকে ভর্তির সময় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ ও হল সংসদের জন্য মোট ১২০ টাকা ফি দিতে হয়। ডাকসু নির্বাচনের জন্য প্রকাশিত ভোটার তালিকায় শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৪৩ হাজার। চলতি বছর ৫২ লাখ ৬০ হাজার টাকা আদায় করেছে বিশ্ববিদ্যালয়। প্রায় তিন দশকে শিক্ষার্থীদের ফি দেয়ার ফলে কম করে হলেও এ টাকা আনুমানিক ১০ কোটি টাকার বেশি। এতো বিপুল অর্থ কোথায় খরচ হয়, তা জানেন না শিক্ষার্থীরা। তবে, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন বলছে, অর্থ জমা আছে তহবিলে। সাধারণ শিক্ষার্থীরা জানান, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এ সম্পর্কে কখনো কোনো তথ্য দেয়নি কখনো। তারা জানেন না, এতো টাকা কোন খাতে ব্যয় হয়েছে বা কোথায় আছে। এ ব্যাপারে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত হিসাব পরিচালক ইলিয়াস হোসেন বলেন, ডাকসু অফিস চালানোর জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের বিধি অনুযায়ী কিছু টাকা খরচ করা হয়েছে। বাকী টাকা ব্যাংকে জমা আছে। তবে কতো টাকা ব্যাংকে আছে, জানাতে পারেননি তিনি। সম্পাদনা : রেজাউল আহসান

সূত্রঃ আমাদের অর্থনীতি

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর