শুক্রবার ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৮:১৫ পিএম


২৫ জুন থেকে আমরন অনশন নন এমপিও শিক্ষকদের

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৯:৪৫, ২০ জুন ২০১৮   আপডেট: ১৫:৪৭, ২১ জুন ২০১৮

আগামী ২৫ জুন সোমবার থেকে আমরন অনশনে যাবেন নন এমপিও শিক্ষকরা। একইসঙ্গে ২৩ জুন শনিবার থেকে নন এমপিও প্রতিষ্ঠানে শিক্ষাদান সম্পূর্ণ বন্ধ রাখবেন তারা। বুধবার বাংলাদেশ নন এমপিও শিক্ষক-কর্মচারি ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় কমিটির সভা শেষে এই কর্মসূচি ঘোষনা করেন শিক্ষক নেতারা।

অন্যান্য কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে- বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদের স্পীকারের মাধ্যমে সব সংসদ সদস্যকে স্মারকলিপি প্রদান ও শুক্রবার রাষ্ট্রপতির কাছে স্মারকলিপি প্রদান। একইসঙ্গে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন। ২৩ জুন শনিবার সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত প্রতিকী অনশন এবং ২৪ জুন একই স্থানে অবস্থান কর্মসূচি পালন করবেন শিক্ষকরা। এরমধ্যে এমপিওভুক্তির সুনির্দিষ্ট সিদ্ধান্ত না নিলে ২৫ জুন থেকে আমরন অনশনে যাবেন শিক্ষকরা।

জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান কর্মসূচি অব্যহত রয়েছে শিক্ষকদের। শিক্ষকরা জানান, আমরা ১৫ থেকে ২০ বছর যাবত বিনাবেতন চাকরি করছি। পরিবার-পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছি। আগে অনেকবার আমরা রাজপথ থেকে ফিরে গেলেও এবার আর যাবো না। দাবি আদায় করেই বাড়ি ফিরবো।

এদিকে এমপিও নীতিমালা ২০১৮ অনুযায়ী বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্ত করতে দুটি কমিটি গঠন করেছে শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ। কমিটি দু’টো হলো-শর্ত পূরণ করা প্রতিষ্ঠানের তালিকা প্রস্তুতের জন্য ‘অনলাইন অ্যাপলিকেশন গ্রহণ ও ব্যবস্থাপনা’ কমিটি এবং ‘এমপিওভুক্তির জন্য বাছাই’ কমিটি।

তবে বাংলাদেশ নন এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারি ফেডারেশনের সভাপতি অধ্যক্ষ গোলাম মাহমুদুন্নবী ডলার বলেন, ‘আমাদের প্রতিষ্ঠানগুলো ১৮ থেকে ২০ বছরের পুরোনো। আমাদের তো অনেক আগেই এমপিও পাওয়ার কথা ছিল। আমাদের জন্য এই নীতিমালা কার্যকর করা কোনোভাবেই উচিত হবে না। আমাদের যদি যোগ্যতা না থাকতো আমাদের কেন স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে। আমরা কোনো শর্তের মধ্যে পড়ে এমপিও চাই না। আমাদের দাবি নন এমপিও সব প্রতিষ্ঠানের একযোগে এমপিওভুক্তি। এছাড়া আমরা আন্দোলন থেকে সরবো না।’

জানা যায়, স্বীকৃত নন এমপিও স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসার সংখ্যা এখন পাঁচ হাজার ২৪২টি। এতে ৮০ হাজারের মতো শিক্ষক-কর্মচারি চাকরি করছেন।

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর