মঙ্গলবার ০৭ এপ্রিল, ২০২০ ১৫:১৯ পিএম


হ্যালো মিনিস্টার! শুনতে পাচ্ছেন? আমি শিক্ষামন্ত্রীকে বলছি

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১০:৫৭, ১৩ মার্চ ২০২০  

হ্যালো মিনিস্টার! শুনতে পাচ্ছেন? আমি শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনিকে বলছি। করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে আজ তামাম দুনিয়া লড়ছে। চীন এ লড়াইয়ে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে সত্য, কিন্তু এর বাইরেও ১২২টি দেশ আক্রান্ত হয়েছে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের তথ্যমতে, গতকাল পর্যন্ত মানুষ মারা গেছে ৪ হাজার ৫২৪ জন। ১ লাখ ২৬ হাজারের বেশি মানুষ আক্রান্ত। নতুন করে কিউবা, হন্ডুরাস ও আইভরিকোস্ট করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। গতকাল বুলগেরিয়া, আয়ারল্যান্ড, সুইডেন ও ইন্দোনেশিয়ায় প্রথম মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। দেশে দেশে কত পর্যবেক্ষণ। আমাদের দেশ এখনো আক্রান্ত হয়নি। তিনজন ধরা পড়লেও দুজন সুস্থ। আল্লাহর অসীম রহমত। অস্ট্রেলিয়া এপ্রিল পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করেছে। ভারতে দুজন মারা গেপ্রণ। তার আগেই দিল্লিতে প্রাইমারি স্কুল বন্ধ। ভারত ভিসা প্রদান বন্ধ করেছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ‘বিশ্ব মহামারী’ ঘোষণা করেছে। নিউইয়র্কে জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। পশ্চিমাসহ শক্তিমান অগ্রসর ধনী দেশকেই নয়, করোনা তামাম দুনিয়াকে কাঁপিয়ে দিয়েছে।

আমাদের সরকার সর্বোচ্চ প্রস্তুতি নিয়েছে। গেল বছর ডেঙ্গুতে আমরা লাখের বেশি ভুগেছি। আড়াই শ মরেছি। মৃত্যু প্রাকৃতিক দুর্যোগ, অসুখ-বিসুখ আমরা ডরাই না। আমাদের চিকিৎসক থেকে, সরকারের সকল পর্যায় থেকে লোকসমাগমে না যেতে বলা হয়েছে। সতর্ক থাকতে বলা হচ্ছে। আমরা অনেক সচেতন। যার যত সামর্থ্য তার তত প্রস্তুতি। আমি বুঝছি না, আমাদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের দাবি উঠলেও বন্ধ হচ্ছে না কেন? আমরা ডরাই না। সতর্ক মানে কি শিক্ষাঙ্গনের গিজগিজ পরিবেশে যাওয়া? অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে থাকা? বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্কুল- সবখানের পরিবেশ জানেন না? কোমলমতি বাচ্চাদের সহজে আক্রমণ করে না।

যদি কোনো শিক্ষক, স্টাফ আক্রান্ত হন আর ভয়ঙ্কর ছোঁয়াচে এ ভাইরাসে যদি অন্যরা আক্রান্ত হয় তাহলে কী দাঁড়াবে? হ্যালো মিনিস্টার! শুনতে পাচ্ছেন? আমরা আক্রান্ত হইনি বলে কি আগাম সতর্ক হব না? শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ না হলে কি অনেক নোবেল লরিয়েট জন্ম নেবে এ কদিনে? আমি করোনা ডরাই না, আতঙ্কিতও নই মিনিস্টার, কিন্তু আমার কন্যাসহ সব সন্তানকে নিয়ে আমি উদ্বিগ্ন। আপনি কেন নন মিনিস্টার? আপনি উচ্চশিক্ষিত মিনিস্টার কেন বুঝছেন না? অনেক অভিভাবক সন্তানকে স্কুলে পাঠাচ্ছেন না। অনেকে টেনশনে। আমরা কর্মস্থলে যাচ্ছি। অর্থনীতি, জীবন-জীবিকা রক্ষায়। কিন্তু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এক মাস বা ১৫ দিন বন্ধ রাখলে কি ভয়াবহ ক্ষতি হবে?


এডুকেশন বাংলা/এজেড

 

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর