বৃহস্পতিবার ১৭ অক্টোবর, ২০১৯ ১৩:৩২ পিএম


স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৯:৩৩, ৩১ জুলাই ২০১৯  

গাজীপুরের কালিয়াকৈরে আঁখি আক্তার (১৩) নামে এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। নিখোঁজের সাতদিন পর বুধবার দুপুরে উপজেলার ঢালজোড়া এলাকার একটি পুকুরের পাশ থেকে তার অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিহত আঁখি আক্তার কালিয়াকৈর উপজেলার ঢালজোড়া এলাকার আব্দুল আলীমের মেয়ে। সে স্থানীয় রিডা মডেল স্কুলের সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী ছিল।

কালিয়াকৈর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর হোসেন মজুমদার নিহতের পরিবারের বরাত দিয়ে জানান, সাতদিন আগে সন্ধ্যায় আঁখি বাড়ি থেকে বেড়িয়ে যায়। এরপর থেকেই সে নিখোঁজ ছিল। অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তার কোনো খোঁজ পাওয়া যায়নি। বুধবার সকালে উপজেলার ঢালজোড়া এলাকার খন্দকার শাজাহান মিয়ার পুকুরের পাশে একটি মরদেহের বিভিন্ন অংশ পড়ে থাকতে দেখেন এলাকাবাসী। পরে তারা পুলিশ ও নিখোঁজ ছাত্রীর বাড়িতে খবর দেয়। খবর পেয়ে কালিয়াকৈর থানা পুলিশ দুপুর আড়াইটার দিকে ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই মানবদেহের বিভিন্ন অংশ উদ্ধার করে। এ সময় পাশের বিলের পানিতে ভেসে থাকা অর্ধগলিত দেহের বাকি অংশ উদ্ধার করা হয়। মরদেহের পাশে জুতা দেখে পরিবারের লোকজন আঁখির মরদেহ শনাক্ত করেন। পরে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহটি গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।

ওসি বলেন, নিহতের গলায় ওড়না পেঁচানো এবং দেহের বিভিন্ন অংশ ছড়ানো ছিটানো অবস্থায় ছিল। ধারণা করা হচ্ছে দুর্বৃত্তরা ওই মেয়েটিকে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে। ময়নাতদন্তের পর হত্যার সঠিক কারণ জানা যাবে।

এডুকেশন বাংলা/একে

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর