সোমবার ১৯ আগস্ট, ২০১৯ ১২:০৮ পিএম


লিখিত পরীক্ষার খাতা মূল্যায়ন হবে এমসিকিউতে ৩০ পেলেই

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ০৮:২০, ২৫ জুলাই ২০১৯   আপডেট: ১২:০৩, ২৫ জুলাই ২০১৯

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে এবার ভর্তি পরীক্ষায় বড় ধরনের পরিবর্তন এনেছে কর্তৃপক্ষ। নতুন পদ্ধতিতে, দেড় ঘণ্টায় নৈর্ব্যক্তিক অংশের ৭৫ নম্বর এবং লিখিত ৪৫ নম্বরের উত্তর করতে হবে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের।


একাধিক সূত্র জানায়, এবার প্রতিটি ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষার সময় হবে দেড় ঘণ্টা। এর মধ্যে নৈর্ব্যক্তিক অংশে ৬০টি প্রশ্নের জন্য ৫০ মিনিট এবং লিখিত অংশের ৩০টি প্রশ্নের জন্য ৪০ মিনিট সময় পাবে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীরা। নৈর্ব্যক্তিক অংশে প্রতিটি প্রশ্নের মান হবে ১ দশমিক ২৫ এবং লিখিত অংশে প্রতিটি প্রশ্নের মান হবে ১ দশমিক ৫০। পরীক্ষায় পাস করতে হলে ভর্তিচ্ছুদের নৈর্ব্যক্তিক অংশে ৩০ নম্বর এবং লিখিত অংশে ১২ নম্বর পেতে হবে।

সূত্র আরও জানায়, এমসিকিউ পরীক্ষায় ৩০ নম্বর পেলে লিখিত পরীক্ষার খাতা মূল্যায়ন করা হবে। কেউ যদি এমসিকিউ অংশে পাস নম্বরের বেশি পাওয়ার পরও লিখিত পরীক্ষায় ১২ নম্বরের কম পায় তাহলে সে ভর্তির অযোগ্য বলে বিবেচিত হবে। লিখিত অংশের জন্য বাংলা ও ইংরেজির বোর্ড বই পড়তে হবে। এ অংশে সাধারণ জ্ঞান থেকে কোনো প্রশ্ন আসবে না। মোট ১২০ নম্বরের পরীক্ষার সঙ্গে এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার জিপিএ (আগের মতোই ৮০ নম্বর) যোগ করে সর্বমোট ২০০ নম্বরের ভিত্তিতে ফলাফল ঘোষণা করা হবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অনলাইনের মাধ্যমে প্রার্থীদের ভর্তির আবেদন প্রক্রিয়া আগামী ৫ আগস্ট শুরু হবে এবং শেষ হবে ২৭ আগস্ট। ভর্তি পরীক্ষার ফরমের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৪৫০ টাকা। প্রতিবন্ধী কোটার ক্ষেত্রে দৃষ্টি, বাক-শ্রবণ ও শারীরিক প্রতিবন্ধী বিষয়টি যুক্ত করা হয়েছে।

ক-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ২০ সেপ্টেম্বর শুক্রবার, খ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ২১ সেপ্টেম্বর শনিবার, গ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ১৩ সেপ্টেম্বর শুক্রবার, ঘ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ২৭ সেপ্টেম্বর শুক্রবার, চ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা (সাধারণ জ্ঞান) ১৪ সেপ্টেম্বর শনিবার এবং চ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা (অংকন) ২৮ সেপ্টেম্বর শনিবার অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া ভর্তি সংক্রান্ত বিস্তারিত নির্দেশনা ও তথ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট এবং বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে শিগগিরই জানিয়ে দেওয়া হবে।

এডুকেশন বাংলা/এজেড

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর