সোমবার ১৪ অক্টোবর, ২০১৯ ১৭:১৫ পিএম


রংপুর মেডিকেলের অধ্যক্ষ আত্মগোপনে

প্রকাশিত: ১১:৫৬, ৪ অক্টোবর ২০১৯  

মামলা দায়েরের পর আত্মগোপনে আছেন রংপুর মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. নুর ইসলাম ও মেডিসিন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. মো. সারোয়াত হোসেন চন্দন। সাড়ে ৪ কোটি টাকা আত্মসাতের দায়ে তাদের বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুদক। মামলায় ৬ জনকে আসামি করা হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কলেজের সচিব একরামুল হক।


বৃহস্পতিবার কলেজে গিয়ে দেখা যায়, ডা. মো. সারোয়াত হোসেন বিদেশ গমনের ছুটি নিয়েছিলেন ২১ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। ছুটি শেষ হওয়ার পরও তিনি যোগদান করেননি। বিদেশ থেকে ফিরেছেন কী না তাও কলেজ কর্তৃপক্ষ বলতে পারছে না। ওই শিক্ষক গ্রেফতার এড়াতে আত্মগোপনে আছেন বলে ধারণা করছেন অনেকে।

একইভাবে আত্মগোপন করেছেন কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. নুর ইসলাম। তিনি অজ্ঞাত স্থান থেকে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে এক মাসের অর্জিত ছুটির জন্য গত ১২ সেপ্টেম্বর আবেদন করেন। কিন্তু মন্ত্রণালয় থেকে তার ছুটি মঞ্জুর হয়েছে কি-না সে বিষয়ে জানিয়ে এখনও কলেজ কর্তৃপক্ষকে পত্র দেয়া হয়নি। কলেজের সচিব একরামূল হক জানিয়েছেন এ ক্ষেত্রে ধরে নেয়া হয় মন্ত্রণালয় অধ্যক্ষের ছুটি মঞ্জুর করেনি।

কলেজ অধ্যক্ষ নুর ইসলাম ও অধ্যাপক ডা. মো. সারোয়াত হোসেন চন্দন অনুমতি ছাড়া কলেজে অনুপস্থিত আছেন। বিদেশ থেকে অধ্যাপক ডা. মো. সারোয়াত হোসেন চন্দন দেশে ফিরেছেন কিনা তাও জানানো হয়নি।

মামলার অন্য আসামিরা হলেন- ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান বেঙ্গল সায়েন্টিফিক কোম্পানির মালিক জাহের উদ্দিন সরকার, বেঙ্গল সায়েন্টিফিকের মালিকের বাবা আবদুস সাত্তার, ছেলে আহসান হাবিব, ভগ্নিপতি আসাদুর রহমান ও রংপুর মেডিকেল কলেজের কমিউনিটি মেডিসিন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. মো. সারোয়াত হোসেন।

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর