বৃহস্পতিবার ২৩ মে, ২০১৯ ১১:৩৩ এএম


মেধাবী শিক্ষার্থী না পাওয়ায় আটকে আছে জেএসসির বৃত্তি

প্রকাশিত: ১২:২৯, ৬ মে ২০১৯  

চার মাস অতিক্রম হলেও এখনও প্রকাশ হয়নি ঢাকা শিক্ষা বোর্ডসহ পাঁচ বোর্ডের জেএসসির বৃত্তির ফল।

বিভিন্ন শিক্ষা বোর্ডের সূত্রে জানা যায়, বেশ কয়েকটি উপজেলায় বৃত্তি পাওয়ার মতো উপযুক্ত মেধাবী শিক্ষার্থী পাওয়া যাচ্ছে না। বিশেষ করে কিছু উপজেলায় ট্যালেণ্টপুলে বৃত্তি দেয়ার মতো প্রয়োজনীয়সংখ্যক শিক্ষার্থী নেই।

এ কারণে বোর্ডগুলোকে বৃত্তির ফল প্রকাশ করতে হলে ওইসব উপজেলায় নির্ধারিতর চেয়ে কমসংখ্যক শিক্ষার্থীকে বৃত্তি দিতে হবে। গত বছর জিপিএ-৫ পাওয়া শিক্ষার্থীর সংখ্যা কমে যাওয়ায় এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে।

জানা যায়, ইতিমধ্যে যশোর, বরিশাল, কুমিল্লা ও মাদরাসা বোর্ডের বৃত্তির ফল প্রকাশ করা হয়েছে। এখনো ফল দিতে পারেনি ঢাকা, চট্টগ্রাম, দিনাজপুর, রাজশাহী ও সিলেট বোর্ড। অথচ প্রতিবছর সাধারণত মার্চ মাসে বৃত্তির ফল প্রকাশ করা হয়।

এ ব্যাপারে ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মু. জিয়াউল হক সাংবাদিকদের বলেন, আমাদের ক্রাইটেরিয়া অনুযায়ী বৃত্তি দিতে হয়। কিন্তু কিছু উপজেলায় বৃত্তির জন্য প্রয়োজনীয়সংখ্যক শিক্ষার্থী আমরা পাইনি। এসব বৃত্তি ফেরত দিলে শিক্ষার্থীরা বঞ্চিত হবে। ফলে ওই বৃত্তিগুলো পুরো জেলায় অথবা জাতীয়ভাবে বণ্টন করে দেওয়া যায় কি না সে জন্য আমরা মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা (মাউশি) অধিদপ্তরের কাছে মতামত চেয়েছি। কারণ তারাই বৃত্তি দেওয়ার মূল কর্তৃপক্ষ।

তিনি আরো বলেন, আমি দ্রুত এ ব্যাপারে শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও মাউশির সঙ্গে কথা বলব। চলতি সপ্তাহেই বৃত্তির ফল প্রকাশের চেষ্টা করব আমরা।

জেএসসির বৃত্তি নীতিমালায় যা আছে
পরীক্ষায় প্রাপ্ত জিপিএর ভিত্তিতে বৃত্তি দেওয়া হবে। জিপিএ প্রক্রিয়ায় একাধিক শিক্ষার্থী একই গ্রেড পেলে চতুর্থ বিষয় ছাড়া প্রাপ্ত মোট নম্বরের ভিত্তিতে মেধাক্রম তৈরি করা হবে। আবার চতুর্থ বিষয় ছাড়া প্রাপ্ত মোট নম্বর একই হলে চতুর্থ বিষয়সহ প্রাপ্ত মোট নম্বরের ভিত্তিতে মেধাক্রম তৈরি করা হবে। এর পরও চতুর্থ বিষয়সহ প্রাপ্ত মোট নম্বরে শিক্ষার্থীর সংখ্যা একাধিক হলে বাংলা, ইংরেজি ও সাধারণ গণিতে প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে মেধাক্রম নির্ধারণ করা হবে।a

এডুকেশন বাংলা/এজেড

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর