মঙ্গলবার ১২ নভেম্বর, ২০১৯ ১৭:১৮ পিএম


মুখোমুখি অধিদপ্তর এবং প্রাথমিক শিক্ষকরা

আফতাব তাজ

প্রকাশিত: ১৫:৪২, ১৭ অক্টোবর ২০১৯   আপডেট: ১৭:৩৭, ১৮ অক্টোবর ২০১৯

বেতন বৈষম্য ও গ্রেড পরিবর্তনের আন্দোলন নিয়ে এখন মুখোমুখি অবস্থানে রয়েছে  অধিদপ্তর এবং প্রাথমিক শিক্ষকরা। একদিকে শিক্ষকরা ঘোষণা অনুযায়ি তিনদিন ধরে কর্মবিরতি পালন করছে, অপরদিকে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর আন্দোলনের বিপরীতে একাধিক সতর্কতামূলক চিঠি এবং বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে। এসব চিঠি এবং বিজ্ঞপ্তিতে আন্দোলনের সাথে সংশ্লিষ্ট শিক্ষকদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার কথাও বলা হয়েছে।

সর্বশেষ গতকাল ১৬ অক্টোবর প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক সোহেল আহমেদ (অতিরিক্ত দায়িত্ব) স্বাক্ষরিত একটি চিঠি জেলা ও উপজেলা কর্মকর্তাদের পাঠানো হয়েছে।
চিঠিতে বেতন বৈষম্য ও গ্রেড পরিবর্তনের আন্দোলনের সাথে সংশ্লিষ্ট শিক্ষকগণকে চিহ্নিত করে প্রতিদিন উপজেলা থেকে তথ্য সংগ্রহপূর্বক যথাযথ কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে প্রধান কার্যালয়কে অবহিত করার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। এর আগে ১৪ অক্টোবরও এধরণের একটি সতর্কতামূলক বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়।

http://www.educationbangla.com/media/PhotoGallery/2019March/dpeporipatro20191017094437.jpg

এদিকে দাবি আদায় না হলে আগামী ২৩ অক্টোবর শিক্ষকরা রাজধানী ঢাকায় উপস্থিত হয়ে মহাসমাবেশে যোগ দেবেন। এরপরও দাবি আদায় না হলে লাগাতার আন্দোলনে নামবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক ঐক্য পরিষদের নেতৃবৃন্দ।

চিঠি এবং বিজ্ঞপ্তি সম্পর্কে বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ঐক্য পরিষদের প্রধান মূখপাত্র বদরুল আলম এডুকেশন বাংলা`কে বলেন আমরা সরকারের বিরুদ্ধে কোনো আন্দোলন করছিনা, আমরা ন্যায্য দাবি আদায়ে আন্দোলন করছি। আমাদের দাবি মেনে নিলে সকল কর্মসূচি উঠিয়ে নেবো।

উল্লেখ্য, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষকদের গ্রেড পরিবর্তনের দাবিতে আজ নিয়ে তিন দিন ধরে কর্মবিরতিতে রয়েছেন শিক্ষকরা। পূর্ব-ঘোষণা অনুযায়ী আজ বৃহস্পতিবার সারাদেশে চলছে পূর্ণ কার্যদিবস কর্মবিরতি পালন করছেন। এর আগে গতকাল অর্ধদিবস কর্মবিরতি পালন করেন তারা। গত পরশু ছিল এক ঘণ্টার কর্মবিরতি।

এডুকেশন বাংলা/এজেড

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর