রবিবার ০৮ ডিসেম্বর, ২০১৯ ৩:৫৮ এএম


মাদ্রাসা-কারিগরির এমপিও পর্যালোচনা কমিটিতে শিক্ষকদের যুক্ত করুন

মো. মোকারম হোসেন

প্রকাশিত: ১৯:৪১, ২০ নভেম্বর ২০১৯   আপডেট: ১৫:৪৬, ২৩ নভেম্বর ২০১৯

মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী ডা.দীপু মনি শিক্ষক নেতাদের বলেছিলেন এমপিও তালিকা প্রকাশের পর অল্প সময়ের মধ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাতের ব্যবস্থা করবেন। কিন্তু অদ্যবধি সাক্ষাতের কোনো প্রক্রিয়া দৃশ্যমান নয়। ননএমপিও শিক্ষকরা এখন হতাশ। এমপিও প্রক্রিয়া ফের দীর্ঘায়িত হতে পারে বলে তারা মনে করছেন।

ইতিপুর্বে আন্দোলন করে কয়েক বার প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাতের প্রতিশ্রুতি পেয়েও তা অদৃশ্য কারণে আলোর মুখ দেখেনি। তারা মনে করে ২০/২৫ বছর ধরে বিনা বেতনে থেকে নিজেরা এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো রুগ্ন হয়ে পড়েছে। এই সমস্যা সমাধানের একমাত্র আশার স্থল মাননীয় প্রধানমন্ত্রী। শিক্ষকরা আস্থার সাথে মনে করেন শিক্ষামন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাতের ব্যবস্থা দ্রুতই করে  দেবেন।  মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাত হলে এমপিও সংক্রান্ত জটিলতার সমাধান হবে বলে শিক্ষকরা প্রত্যাশা করছেন।

ইতিমধ্যে মাননীয় শিক্ষামন্ত্রীর নির্দেশনায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ এমপিও পর্যালোচনা কমিটিতে ভুক্তভোগী সংগঠনের সভাপতি ও সম্পাদককে সদস্য করে প্রশংসিত হয়েছেন। কিন্তু দুঃখের বিষয় শিক্ষামন্ত্রীর একই নির্দেশনা থাকার পরও অদৃশ্য কারণে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাদ্রাসা ও কারিগরি বিভাগের কমিটিতে ভুক্তভোগী সংগঠনের শিক্ষকদের সদস্য রাখা হয়নি। যুক্তিসঙ্গত কারণে শিক্ষকরা হতাশ। কারণ একই ভুলের কারণে ভুলেভরা নীতিমালার আলোকে এমপিও তালিকা প্রকাশে বঞ্চিত হয়ে শিক্ষক সমাজ অসহনীয় যন্ত্রণার মধ্যে আছেন।

শিক্ষকদের প্রত্যাশা, মাদ্রাসা ও কারিগরি বিভাগের এমপিও পর্যালোচনা কমিটিতে ভুক্তভোগী সংগঠনের শিক্ষকদের সদস্য করা হবে। তারা আরও আশা করে যুগোপযোগী ও বাস্তবতার আলোকে একটি নীতিমালা প্রস্তুত করা হবে। শিক্ষামন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী প্রতি অর্থবছরে নতুন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করা হবে বলে শিক্ষকরা অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে।

শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের যা কাজের গতি তাতে কি শিক্ষকদের আশার প্রতিফলন সহসাই পুরণ হবে?

[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নন]

লেখক: মো. মোকারম হোসেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক

নন এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক কর্মচারী ফেডারেশন, কেন্দ্রীয় কমিটি।

এডুকেশন/কেআর

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর