শনিবার ২৫ মে, ২০১৯ ১৭:১৭ পিএম


মধ্য বাড্ডায় বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর আত্মহত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৬:৩১, ১৩ মে ২০১৯   আপডেট: ১৬:৩২, ১৩ মে ২০১৯

রাজধানীর মধ্য বাড্ডা বৈশাখী স্মরণীর ট-৬৮/৩ নম্বর বাসায় গলায় ফাঁস দিয়ে নাওশিস আহমেদ সাবা (২২) নামের এক গৃহবধূ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী আত্মহত্যা করেছে।

রবিবার দিবাগত রাত ১২ টার দিকে বাসার ৩য় তলায় গলায় ফাঁস দেয় সে। পরে স্বামী সেলিম আহমেদ তাকে উদ্ধার করে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে চিকিৎসক তাকে রাত সাড়ে ১২টায় চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

বাড্ডা থানার এসআই দেবী কান্ত বর্মন গত রাত ৩টার দিকে ওই হাসপাতাল থেকে তার লাশ উদ্ধার করে। পরে ময়না তদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠায়।


এসআই দেবী কান্ত বর্মন জানান, স্বামী স্ত্রী বৈশাখী সরণীর ওই বাসার ৩য় তলায় ভাড়া থাকতো। জামা কাপড় কেনা নিয়ে গত রাতে তাদের মধ্যে মনোমালিন্য হয়। এতে অভিমান করে সাবা পাশের রুমে গিয়ে নিজের ব্যবহৃত ওড়না দিয়ে ফ্যানের সাথে গলায় ফাঁস দেয়।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ মর্গে সাবার ভগ্নিপতি মাহমুদ জানান, সাউথ এশিয়ান বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স এর দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী ছিলেন সাবা। গত ১০ মাস আগে প্রেমের সম্পর্কে সেলিম আহমেদ এর সাথে বিয়ে হয় সাবার। তাদের বাড়ি জয়পুরহাট জেলার কালাই উপজেলার কালাইপুনট গ্রামে। বাবার নাম মাহবুবুল হাসান শহীদ। বিয়ের পর থেকে তারা বৈশাখী ওই বাসার ভাড়া থাকতেন। ৩ বোনের মধ্যে ২য় সাবা।

এডুকেশন বাংলা/একে

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর