বৃহস্পতিবার ১২ ডিসেম্বর, ২০১৯ ৭:০৬ এএম


ভালোবাসাটা নেই যেভাবে বুঝবেন

এডুকেশন বাংলা ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৯:৪৮, ২৫ নভেম্বর ২০১৯  

সে আর আপনাকে ভালোবাসে না- এটা বোঝার জন্য ‘সম্পর্ক-বিষয়ক অভিজ্ঞ ব্যক্তি’ হওয়ার প্রয়োজন নেই। সম্পর্ক-বিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন অবলম্বনে কিছু বিষয় এখানে তুলে ধরা হল, যা থেকে আন্দাজ করা যেতে পারে সঙ্গী আর আপনাকে ভালোবাসে না।

তার কিছু যায় আসে না: আপনার এবং আপনার সম্পর্কিত কোনো কিছুর ব্যাপারেই তার আগ্রহ কাজ করে না। আপনার দিনটা কেমন গেল সেই ব্যাপারে তার জানার ইচ্ছে হয় না। এই ধরনের সব কিছুই যেন তার মধ্যে থেকে হারিয়ে যাচ্ছে। হয়ত প্রথম প্রথম মনে হবে সে হয়ত কোনো কিছুতেই আগ্রহ পাচ্ছে না, তবে সময়ে অনুভূব করতে থাকবেন, অন্য কিছু নয় বরং আপনার কোনো বিষয়ে তার কোনো আগ্রহ কাজ করছে না।

আরো পড়ুন: পরকীয়া আসক্তি থেকে যেভাবে মুক্তি পাবেন

প্রশংসা নেই: অবশ্যই প্রেমের শুরুটা ছিল দুজনের প্রতি আকর্ষণ থেকে। তবে এখন মনে হচ্ছে সেই আকর্ষণ নেই। ‘দেখতে সুন্দর লাগছে’ বা এই ধরনের প্রশংসা-বাক্যগুলো আর তার মুখ থেকে বের হয় না। চুল কাটিয়েছেন বা ফ্যাশনের কোনো পরিবর্তন করছেন সেই ব্যাপারে তার কোনো খেয়াল নেই। যে শারীরিক আকর্ষণ দিয়ে শুরু হয়েছিল সম্পর্ক, সেটা আর কাজ করছে না তার মধ্যে।

সম্পর্ক রক্ষায় তার কোনো আগ্রহ নেই: দুজনেই পরিষ্কারভাবে বুঝতে পারবেন এই সম্পর্কের রসায়নটা কাজ করছে না। তবে সেটা ঠিক করার জন্য সঙ্গীর কাছ থেকে কোনো সাড়া শব্দ পাওয়া যায় না। এমনকি সম্পর্ক রক্ষায় আপনি যতই চেষ্টা করুন তার দিক থেকে কোনো আগ্রহ কাজ করে না। এটা দুই জনের খেলা, একজন না খেললেই সেটার আর কোনো ভবিষ্যৎ নেই।

যোগাযোগ কম: যে কোনো সম্পর্কের প্রধান চাবিকাঠি হল যোগাযোগ। সম্পর্কে কোনো ফাঁটল থাকলে সেটা সারাতে সাহায্য করে। তবে এখন নিজেদের সম্পর্ক নিয়ে তেমন কোনো ‍গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা হয় না। আর নিজেই টের পাবেন ‘চমক’টা আর নেই।

সে তার নিজের মতোই সব কিছু করে, তবে আপনার কথা ভাবেও না: যখন কোনো কিছু করার কথা মাথায় আসে যেমন- ঘুরতে যাওয়া বা কোথাও সময় কাটানো- তখন আপনার কথা না ভেবে নিজের মতো সিদ্ধান্ত নিয়ে সেটা করে। আর এই কারণে আপনার খারাপ লাগাটাও তার কাছে গুরুত্বপূর্ণ নয়। আপনার খারাপ বা ভালোলাগার অনুভূতি পাত্তা না দিয়ে সে নিজের জন্য যেটা ভালো বলে বিশ্বাস করে সেটাই সে করতে থাকে।

ধন্যবাদ নেই: সঙ্গীর জন্য কেনা ফুল নিয়ে গিয়েছেন, সে আনন্দে আপনাকে জড়িয়ে ধরেছে, কোথাও খেতে গিয়েছেন তাকে নিয়ে, তার মুখে হাসি। কিন্তু এই বিষয়গুলো আর হচ্ছে না। এমনকি একসঙ্গে খেতে গিয়েও সে হয়ত মোবাইলেই মুখ গুজে থাকছে, অন্যদের সঙ্গে ‘টেক্সট’ করে যাচ্ছে ম্যাসেঞ্জারে বা শুধুই ফেইসবুক ঘাটাঘাটি করছে। আপনার কোনো আয়োজনই তাকে তেমন একটা আনন্দ দিচ্ছে না।

আপনিই যখন কথা শুরু করেন: একসময় সঙ্গী বেশিরভাগ সময় আপনার সঙ্গে যোগাযোগ করতো। তবে এখন সেটা প্রায় থামতে বসেছে। সে হয়তো আপনার কণ্ঠ শোনার জন্যই যখন তখন কথা বলতো। কিন্তু এখন উল্টো। দিনের শুরুতে প্রতিনিয়ত আপনাকেই কথা শুরু করতে হয়। তবে সেই কথাবার্তায় তার তেমন কোনো আগ্রহ কাজ করে না।

আপনাকে গুরুত্বপূর্ণ ভাবাতে তেমন কিছু করে না: অতীতে সে অনেক কিছুই করতো। আপনাকে ‘স্পেশাল’ ভাবানোর জন্য তার আয়োজনের কমতি থাকতো না। তবে সেই আগ্রহ এখন অনেকটাই নেই। আপনাকে গুরুত্বপূর্ণ ভাবাতে সে এখন তেমন কিছুই করে না। এর মানে হল, সে আর আপনার সঙ্গে সুখী নয়।

মনোযোগ দিতেও চায় না নিতেও আগ্রহী না: খুব কমই সে আপনার মনোযোগ আকর্ষণের চেষ্টা করে। কথা বলা, মানসিক কিংবা শারীরিক সব বিষয়ের কেন্দ্রবিন্দু ছিলেন আপনি। কিন্তু এখন আর সেই মনোযোগ আকর্ষণের চেষ্টা নেই। এরকম ভাব করে আপনি যেন তার সামনেই নেই। আপনার মধ্যেও যদি একই বিষয় কাজ করে তাহলে বুঝতে হবে আপনারও তেমন কোনো আকর্ষণ কাজ করছে না।

শারীরিক অন্তরঙ্গতা কম: এখানে শুধু বিছানায় যাওয়া নয়, ভালোবেসে জড়িয়ে ধরা, চুমু খাওয়া, হাত ধরে থাকা- এই ধরনের বিষয়গুলো একদমই হয় না। দুজনের মধ্যে শারীরিক অন্তরঙ্গতার বিষয়গুলো অদৃশ্য হতে শুরু করেছে। এই ধরনের ব্যাপার ঘটা শুরু করলে নিজেদের সম্পর্কের বিষয়ে ভাবনা চিন্তা শুরু করতে হবে।

ভালোবাসা প্রেম- স্বর্গীয় ব্যাপার হলেও, এগুলোতে জোর করা যায় না। সঙ্গীর ভেতর থেকে ভালোবাসার অনুভূতি হারাতে থাকলে আর সেটা ঠিক করার বিষয়ে তার দিক থেকে কোনো সাড়া না পাওয়া গেলে বরং নিজেকে প্রস্তুত করতে হবে সরে যাওয়ার জন্য। কারণ জীবন কখনও একরকম যায় না।

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর