শুক্রবার ০৬ ডিসেম্বর, ২০১৯ ১:১৪ এএম


বেসরকারি টিটিসি বন্ধ করার দাবি জেলা প্রশাসকদের

খায়ের রওনক

প্রকাশিত: ১৮:৩৮, ১৫ জুলাই ২০১৯   আপডেট: ০৯:৩৫, ১৬ জুলাই ২০১৯

বেসরকারি টিটিসি বন্ধ করার দাবি জানিয়েছেন জেলা প্রশাসকরা। আজ সোমবার সচিবালয়ে জেলা প্রশাসক সম্মেলনের দ্বিতীয় দিনে শিক্ষা মন্ত্রণালয়সম্পর্কিত আলোচনায় ডিসিরা এই দাবি জানান।

জেলাপ্রশাসকদের সম্মেলনে ঝিনাইদহের জেলাপ্রশাসক বলেন, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে সঠিক যাচাই বাছাই ছাড়া চালুকৃত টিটিসি বা বিএড কলেজ বন্ধ করা দাবি জানাচ্ছি।

তিনি এর স্বপক্ষে প্রস্তাব তুলে ধরে বলেন, অধিকাংশ প্রতিষ্ঠানই নাম সর্বস্ব। শিক্ষকগণ সরকারি টিটিসিথেকে যেভাবে প্রশিক্ষণ পান বেসরকারিতে তার ন্যূনতম প্রদান করা হয়না ।

প্রকৃত জ্ঞানহীন সনদের কারণে সরকারি অর্থের অপচয় হচ্ছে কিন্তু কাঙ্খিত ফলাফল পাওয়া যাচ্ছে না।

ইতোমধ্যে অনুমতি প্রাপ্ত প্রতিষ্ঠানের সক্ষমতা যাচাই করার জন্য জেলা পর্যায়ে কমিটি করা যেতে পারে।

টিটিসি বা বিএড কলেজ অনুমোদনের পূর্বে এর প্রয়োজনীতা জেলা পর্যায়ে যাচাই কমিটি কর্তৃক যাচাই করা যেত পারে।

তাছাড়া জেলা প্রশাসক সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক বিষয়ক উপদেষ্টা ড. মশিউর রহমান ক্ষুদ্রঋণ বিষয়ে বলেন, ডিসিরা সাধারণ মানুষ ও জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে কথা বলে জানতে পেরেছেন- ঋণ বিতরণে কিছু সমস্যার কথা। সেগুলো হলো- কৃষিঋণ, মহিলা ঋণ, ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের ঋণে বিতরণে অসুবিধা হয়। কারণ ব্যাংকে যে বরাদ্দ থাকে, ব্রাঞ্চ সেই ঋণ দিতে পারে না। মহিলারা অনেক সময় শর্ত পূরণ করতে পারে না। গরিব মহিলাদের অনেকের জমি নেই, থাকলেও বাবা-মা, স্বামী বা ভাইয়ের সমর্থন ছাড়া কিছু করতে পারে না। তাই এসব শর্ত সহজ করা যায় কি-না সে বিষয়েও প্রস্তাব দিয়েছেন ডিসিরা।

এডুকেশন বাংলা/একে

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর