রবিবার ০৯ আগস্ট, ২০২০ ২৩:২৯ পিএম


বাল্যবিয়ে ঠেকাতে মৃত্যুকে বেছে নিল নবম শ্রেণির ছাত্রী

প্রকাশিত: ০৮:৩১, ২০ এপ্রিল ২০২০  

‘ভালো পাত্র পেয়ে’ বাবা-মা বিয়ের কথার পর আত্মহত্যা করেছে নাটোরের স্কুলপড়ুয়া এক মেয়ে। রবিবার দুপুরে নাটোরের সিংড়া উপজেলার শুকাস ইউনিয়নের দুর্গাপুর গ্রামে তার শোবার ঘরে মেয়েটি বিষপান করে আত্মহত্যা করেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

নাটোরের সিংড়া উপজেলার শুকাস ইউনিয়নের দুর্গাপুর গ্রামের আব্দুল মান্নানের মেয়ে নাইস খাতুন (১৫) দুর্গাপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী ছিল।

নাইসের বাবা আব্দুল মান্নান মেয়ের বিয়ের কথাবার্তা হচ্ছিল স্বীকার করে বলেন, মেয়ে ঘরে থাকলে তো লোকজন বিয়ের কথা বলেই। তবে এজন্য তাকে জোরজবরদস্তি করা হয়নি। কেন যে সে এভাবে চলে গেল তা ভাবতে পারছি না।

মৃতের পরিবারকে উদ্ধৃত করে সিংড়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ইলিয়াস কবির জানান, ‘ভালো একটা পাত্রের’ কাছ থেকে নাইসের বিয়ের প্রস্তাব এসেছিল। বাবা-মার সম্মতি থাকলেও বিয়েতে রাজি হচ্ছিল না মেয়েটি। দুর্গাপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণিতে পড়া নাইসের ইচ্ছা ছিল আরও পড়ালেখা করে প্রাপ্তবয়স্ক হয়ে বিয়ে করবে। কিন্তু বিষয়টি নিয়ে পরিবারের সাথে সমঝোতা হচ্ছিল না তার।

রবিবার দুপুরে তার শোবার ঘরে বিষ পান করে আত্মহত্যা খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে বলে জানান তিনি। পরিবারের কারো আপত্তি না থাকায় লাশ দাফন করা হয়েছে বলেও জানায় পুলিশ।

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর