সোমবার ১৭ জুন, ২০১৯ ৫:১৬ এএম


সরকারিদের বাংলা নববর্ষ ভাতা আর বেসরকারি শিক্ষকদের বৈশাখী ভাতা

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৭:৪৬, ১১ এপ্রিল ২০১৯   আপডেট: ০৯:৫২, ১২ এপ্রিল ২০১৯

২০১৫-১৬ অর্থবছর থেকে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারিদের চালূ হয় ‘বাংলা নববর্ষ ভাতা’। ২০১৬ সালের ৩০ মার্চ অর্থ মন্ত্রনালয় থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। কিন্তু এমপিওভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারিদের সরকার শতভাগ বেতন দিলেও একই সময় থেকে বাংলা নববর্ষ ভাতা চালূ করেনি।

তবে শিক্ষকদের আন্দোলনের মুখে ২০১৮-১৯ অর্থবছর থেকে শিক্ষক-কর্মচারিদেও জন্যও একই ভাতা চালু করে সরকার। আগামী ১৪ এপ্রিল বাংলা নববর্ষ উপলক্ষ্যে যা ইতিমধ্যে ছাড় করেছে শিক্ষা মন্ত্রনালয়। তবে গত ১১ এপ্রিল মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা (মাউশি) অধিদপ্তরের এ সংক্রান্ত সার্কুলারে বাংলা নববর্ষ ভাতাকে লেখা হয়েছে ‘বৈশাখী ভাতা ১৪২৬’। এখন শিক্ষকদের মনে প্রশ্ন সরকার বাংলা নববর্ষ ভাতা প্রচলন করলেও মাউশি অধিদপ্তর শুধুমাত্র এমপিওভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারিদের জন্য কেন বৈশাখী ভাতা চালু করলো।

সরকারি চাকরিজীবীদের বাংলা নববর্ষ ভাতার প্রজ্ঞাপন

এখন অধিদপ্তর কী জেনেশুনেই এই কাজ করেছে নাকি তারা অজ্ঞ। তাহলে আসলেই কী হবে ‘বাংলা নববর্ষ ভাতা না বৈশাখী ভাতা’। নাম প্রকাশ না করে রাজধানীর একটি এমপিওভুক্ত স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ এডুকেশন বাংলাকে বলেন, ‘বৈশাখী ভাতা নাম দেওয়ায় ইতিমধ্যে শিক্ষক-কর্মচারিদের মধ্যে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। সরকারের দেওয়া ভাতাকে পরিবর্তিত নামে দেওয়াটা ছোট করে দেখার কথা নয়। অবশ্যই এর সমাধান হওয়া উচিত।’

বেসরকারি শিক্ষকদের বৈশাখী ভাতা প্রদানের আদেশ

বেসরকারি শিক্ষকদের বৈশাখী খাতা প্রদান সংক্রান্ত শিক্ষা অধিদপ্তরের আদেশ

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর