বৃহস্পতিবার ১৫ নভেম্বর, ২০১৮ ১০:২১ এএম

Sonargaon University Dhaka Bangladesh
University of Global Village (UGV)

বাংলাদেশ থেকে স্মার্টকার্ড তৈরি করতে আগ্রহী কয়েকটি দেশ

প্রকাশিত: ১২:৫৮, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  

দক্ষিণ এশিয়ার নির্বাচন কমিশনগুলোর সংগঠন ফেমবোসার সদস্য দেশগুলো বাংলাদেশ থেকে বাণিজ্যিকভাবে স্মার্ট পরিচয়পত্র (আইডি কার্ড) তৈরি করে নিতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে।

গতকাল বুধবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগের (এনআইডি উইং) মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম এনটিভি অনলাইনকে এ তথ্য জানান।

সাইদুল ইসলাম বলেন, ‘আফগানিস্তান, মিয়ানমার, নেপালসহ আরো দু-একটা দেশ বাংলাদেশ থেকে স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র তৈরি করে নেওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেছে। তাদের টিম আগামীতে বাংলাদেশে আসবে এ বিষয়ে আরো বিস্তারিত দেখতে বা কথা বলতে।’

এনআইডির মহাপরিচালক বলেন, ‘ফেমবোসার আটটি দেশ বাংলাদেশে এসেই আমাদের স্মার্টকার্ড দেখেছে। এ বিষয়ে বিস্তারিত জেনেছে। স্মার্টকার্ডের ফিচার দেখে তাদের খুব পছন্দ হয়েছে। আমরা সমগ্র ফিচার ভিডিও ও অডিওর মাধ্যমে তুলে ধরেছি তাদের কাছে। তারা আরো দেখতে চেয়েছিল। কিন্তু সময় স্বল্পতার কারণে তারা পরে আর দেখতে পারেনি। তারা বলে গেছে, আবার আসবে এবং কিনবে।’

সাইদুল ইসলাম আরো বলেন, ‘এটা তৈরি করতে আমাদের খরচ হবে ১ দশমিক ৬ ডলারের মতো। খুব ভালো মানের হলে সর্বোচ্চ খরচ ২ দশমিক ২ ডলার। এখন আমরা এই কার্ড তাদের কাছে বিক্রি করতে পারব আড়াই ডলারে। তারা নিতেও চেয়েছে। এখানেও আমাদের লাভ হচ্ছে। দেশের টাকা আয় হবে। এর পরে জনপ্রিয়তা পেলে আমরা আরো বেশি বেশি দামে বিক্রি করতে পারব।’ তিনি আরো বলেন, ‘আমাদের জনবল খরচ কম, তাই খরচও কম পড়বে। কিন্তু অন্য দেশে এই সেম কার্ড কিনতে চার ডলারের মতো খরচ হবে তাদের। সেটা তাদের জন্য লস। তাহলে তারা সেখান থেকে কেন নেবে? আর আমাদের মতো এত আধুনিক প্রযুক্তি দিয়ে তৈরি কার্ড খুব কম দেশেই আছে।’

মহাপরিচালক আরো বলেন, ‘স্মার্টকার্ডের মধ্য পাঁচটি স্তরে ২৫টি সিকিউরিটি ফিচার আছে। কতটি স্তরে কী কী ফিচার আছে, তারা তা জেনেছেন। যেমন ধরেন, কার্ডের ভেতরে একটি পাতা আছে, ওই পাতায় বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ, জাতীয় সংগীত, বাংলাদেশের মানচিত্র, শাপলা ফুল, আলট্রাভায়োলেট রে, চোখের আইরিশ আছে, বায়োমেট্রিক, ফিঙ্গার প্রিন্টসহ আরো কয়েকটি ফিচার আছে। এ ছাড়া একজন মানুষের ৩১টি ডাটা আছে। এই ডাটাগুলো তার কি না আইডি পাঞ্চ করলেই সব দেখা যাবে। কিনলে তারা তাদের মতো করে ডাটা তৈরি করে নেবে।’

সাইদুল ইসলাম বলেন, ‘এই কার্ডগুলো দিয়ে পাসপোর্টের কাজও করা যাবে। আমরা ফেমবোসার দেশগুলোতে পাসপোর্টের বদলে স্মার্টকার্ড ব্যবহার করতে পারব। এতে করে আমাদের পাসপোর্টের ঝামেলা কমে যাবে।’

গত ৫-৬ সেপ্টেম্বর ঢাকার র‍্যাডিসন হোটেলে ফোরাম অব দি ইলেকশন ম্যানেজমেন্ট বডিজ অব সাউথ এশিয়ার (ফেমবোসা) নবম সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশসহ ফোরামের আট সদস্য দেশের নির্বাচন কমিশনার অথবা নির্বাচন-সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা এতে অংশ নেন।

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর