রবিবার ২৪ মার্চ, ২০১৯ ৯:০৫ এএম

Sonargaon University Dhaka Bangladesh
University of Global Village (UGV)

ফিনল্যান্ডে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ হয় যেভাবে?

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ০৭:৩৬, ১৩ জুন ২০১৮   আপডেট: ০৯:০৩, ১৩ জুন ২০১৮

পৃথিবীর সব চাইতে উন্নত দেশগুলো যেমন ফিনল্যান্ড, জাপান, নরওয়ে ইত্যাদি দেশগুলোতে স্কুল শিক্ষকতা হচ্ছে ঐ দেশগুলোর সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ এবং সবচেয়ে বেশি বেতনের চাকরিগুলোর মধ্যে একটি। কারণ তারা ভালোভাবেই জেনে গেছে একটি দেশ ও জাতিকে উন্নয়নের শীর্ষে নিতে হলে দেশের শিক্ষাব্যাবস্থাকে সবচেয়ে ভালো হতে হবে। আর একটি দেশের শিক্ষার মান উন্নত হয় ঐ দেশের শিক্ষকদের কারণে। তাই শিক্ষক নির্বাচন করা হয় দেশের সেরা গ্র্যাজুয়েটদের মধ্যে থেকে।

এক্ষেত্রে ফিনল্যান্ডের উদারহণ দেয়া যেতে পারে। ফিনল্যান্ডের একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে আপনি শিক্ষক হিসাবে নিয়োগ পেতে চাইলে আপনাকে আপনার ক্লাসে প্রথম ১০ জনের মধ্যে থাকতে হবে। এর বাইরে হলে আপনি অ্যাপ্লাই করতে পারবেন না।

অ্যাপ্লাই করার পর প্রতি প্রার্থী এক বছরেরও বেশি সময় কোনও না কোনও স্কুলের সাথে যুক্ত হন। এই সময় চলে তাদের নানারকম প্রশিক্ষণ। স্কুলের সবচেয়ে ভালো শিক্ষকদের সাথে তাকে থেকে থেকে তাদের ক্লাস দেখতে হয়। এরপর কিছুদিন পর সে নিজে ক্লাস নেয়ার উপযুক্ত হলে তাকে নিজে নিজে ক্লাস নিতে দেয়া হয়। তখন আবার সিনিয়র শিক্ষকরা তার ক্লাসগুলো নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করেন। মাঝে মাঝে আবার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের বিশেষ প্রশিক্ষকরা এসে সেই ক্লাসগুলো মূল্যায়ন করেন।

শিক্ষকতার নানা উল্লেখযোগ্য বিষয়গুলোর উপর প্রার্থীর মূল্যায়ন হয় – সে ক্লাসটা কত ইন্টারেস্টিংভাবে নিচ্ছে, তার গ্রুপওয়ার্কগুলো কেমন হচ্ছে, শিক্ষার্থীরা ক্লাসে মনোযোগ দিচ্ছে কিনা, ঠিকমতো শিখছে কিনা ইত্যাদি।

এক বছরের এই প্রশিক্ষণে থাকে ভাইভা, থাকে লিখিত পরীক্ষা আর সবশেষে প্র্যাকটিক্যাল (আসল ক্লাস নেয়া) পরীক্ষা। এই এক বছরের প্রশিক্ষণের পর সব প্রার্থীদের মধ্যে থেকে বাছাই করে সেরা ১০% প্রার্থীকে নিয়োগ দেয়া হয় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক হিসাবে।

ভেবে দেখুন, ইউনিভার্সিটির সেরা ১০ জন ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে থেকে প্রাথমিক বাছাইকরাদের মধ্যে থেকে ছেঁকে মাত্র সেরা ১০% নিয়োগ দেয়া হচ্ছে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক হিসাবে। তাহলে গাণিতিক হিসাবে ফিনল্যান্ডের সেরা ১% গ্রেজুয়েটরা আসলে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক হচ্ছেন।

এখন তাহলে ভাবছেন বাকিদের কি হচ্ছে? বেচারারা একটা বছর খাটাখাটি করে এখন তবে বাদ পড়লো। এরকম হলে তো আমি পরীক্ষাই দিতে যেতাম না।

বাকিদের মধ্যে পরের সেরা প্রার্থীরা সুযোগ পায় হাইস্কুল এবং কলেজ লেভেলে শিক্ষক হওয়ার। আর সব শেষে যারা থাকেন তারা এরপর সুযোগ নেন ইউনিভার্সিটির শিক্ষক হওয়ার। এবং এই ইউনিভার্সিটিতে শিক্ষক নেয়ার সময় তারা যে এক বছর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক হওয়ার জন্য প্রশিক্ষণ পেয়েছেন এই ব্যাপারটিকে অনেক গুরুত্ব দিয়ে দেখা হয়। এটার জন্য তারা এক্সট্রা কিছু মার্কস পায়।

যারা ইউনিভার্সিটিতেও শিক্ষক হতে পারলেন না তারাও এই এক বছরকে তাদের জীবন থেকে নষ্ট হল বলে মনে করেন না। তারা এই এক বছরকে তাদের জীবনের সেরা প্রশিক্ষণ এবং নিজের দক্ষতা উন্নয়নের একটি সুযোগ হিসাবে দেখেন। কারণ তারা জানেন একজন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষককে প্রতিদিন যে পরিমাণ চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হয় সেটি অন্য কোন জবে করতে হয় না। যারা ফিনল্যান্ডের স্কুল শিক্ষক হওয়ার এই প্রশিক্ষণ পেয়েছে তারা অন্য যেকোনো সেক্টরে ভালো করে।

কেন ফিনল্যান্ড পৃথিবীর অন্যতম সেরা একটি শিক্ষাব্যাবস্থা হিসাবে বিবেচিত হয় এখন আশা করি পাঠক বুঝতে পেরেছেন। যেই দেশ নিজের সেরা ছাত্রছাত্রীদের বাছাই করে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক হতে সেই দেশের ছাত্রছাত্রীরা তো পৃথিবীসেরা হবেই।
(সংগৃহীত)

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর