সোমবার ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ৩:৫৭ এএম


প্রাথমিকের প্রধান শিক্ষকদের ১০ম গ্রেডসহ গেজেটেড মর্যাদা, রুল জারি

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৮:২১, ৬ মার্চ ২০১৮   আপডেট: ১০:৩০, ৮ মার্চ ২০১৮

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকদের বেতন স্কেল ১০ম গ্রেড কেন নয় তা জানতে চেয়ে সরকারের প্রতি রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। বিচারপতি নাঈমা হায়দার ও বিচারপতি জাফর আহমেদ এর সমন্বয়ে গঠিত ডিভিশন বেঞ্চ সোমবার (৫ মার্চ) শুনানী শেষে এই রুল দেন।

প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ও প্রশিক্ষণবিহীন উভয় প্রধান শিক্ষকদেরকে ৯ মার্চ ২০১৪ থেকে ১০ম গ্রেডসহ গেজেটেড পদমর্যাদার দাবিতে মহামান্য হাইকোর্টে রীট পিটিশনটি (নম্বর ৩২১৪/২০১৮) দায়ের করেন বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক সমিতির সভাপতি রিয়াজ পারভেজ। এছাড়াও ছিলেন মো. নুরে আলম সিদ্দিকী, মো. আলাউদ্দিন মোল্লা, মোঃ নজরুল ইসলাম, খায়রুল ইসলামসহ আরো অনেকে।

বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক সমিতির সভাপতি রিয়াজ পারভেজ বলেন, ১০ম গ্রেড প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকদের ন্যায্য অধিকার। এই অধিকার আদায়ে বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক সমিতি জন্মলগ্ন থেকে কাজ করে যাচ্ছে। সর্বশেষ আদালতের শরণাপন্ন হয়েছি। এই রুল জারিকে একটি মাইলফলক হিসেবেই দেখছি।

২০১৪ সালের ৯ মার্চ প্রধান শিক্ষকদের দ্বিতীয় শ্রেণির পদমর্যাদা ঘোষণার পর থেকেই ১০ম গ্রেড বাস্তবায়নের জন্য আন্দোলন করে আসছে বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক সমিতি। সমিতির একাধিক সদস্য বলেন, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের পদটি ২০১৪ সালে দ্বিতীয় শ্রেণিতে উন্নীত করেছিল প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। কিন্তু তখন মন্ত্রণালয় কৌশলে প্রধান শিক্ষকদের বেতন নির্ধারণ করেন ১১তম (প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত) ও ১২তম গ্রেডে (প্রশিক্ষণবিহীন)। অথচ নন-ক্যাডার দ্বিতীয় শ্রেণির পদে অন্যান্য মন্ত্রণালয় বা বিভাগে দ্বিতীয় শ্রেণির কর্মকর্তারা জাতীয় বেতন স্কেলের ১০ম গ্রেডে বেতন পান।

রীটে আরও দাবি করা হয় বিদ্যমান প্রত্যেক প্রধান শিক্ষকদের নাম উল্লেখ করে (ইু হধসব) গেজেট নোটিফিকেশন জারি করা।

এ ছাড়াও রীটে হিসাবরক্ষণ অফিস হতে বেতন-বিল আহরণ করার জন্য সেলফ ড্রয়িং ক্ষমতা পাওয়া তথা প্রতিষ্ঠান প্রধান হিসাবে আয়ন-ব্যয়ন কর্মকর্তার ক্ষমতা পাওয়ার দাবি করা হয়।

 

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর