শনিবার ২৪ আগস্ট, ২০১৯ ২০:০৯ পিএম


প্রসঙ্গ: বেসরকারি অনার্স-মাস্টার্সের শিক্ষকদের এমপিওভুক্তি

মো.জামির হোসেন

প্রকাশিত: ০৯:৪৪, ৪ মে ২০১৯   আপডেট: ০৯:৪৬, ৪ মে ২০১৯

বেসরকারি কলেজ সমূহে অনার্স-মাস্টার্স কোর্স চালু করা হয় ১৯৯৩ সালে । দীর্ঘ ২৭ বছর অতিবাহিত হয়ে গেলেও এমপিওভুক্ত করা হয়নি।

একই এমপিওভুক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যেখানে ইন্টারমিডিয়েট ও ডিগ্রির শিক্ষকরা এমপিওভুক্ত হতে পারে অন্যদিকে মাদ্রাসা পর্যায়ের কামিল ও ফাজিল কোর্সের শিক্ষকরাও এমপিওভুক্ত হতে পারে সেখানে অনার্স- মাস্টার্স  কোর্সের শিক্ষকদের কেন এমপিওভুক্ত করা হয় না? দীর্ঘদিন বেতন না পাওয়ায় শিক্ষকরা মানবেতর জীবনযাপন করছে।প্রায় তিনলক্ষ শিক্ষার্থীকে শিক্ষাদানে নিয়োজিত ৩,৫০০ জন শিক্ষকরা সরকারি বিধি মোতাবেক নিয়োগ পেয়েও সাংবিধানিক মৌলিক অধিকার থেকে বঞ্চিত।

প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর, সংসদীয় স্থায়ী কমিটি, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি মহোদয় এসকল শিক্ষকদের এমপিওভুক্তি প্রদানের জন্য একাধিকবার সুপারিশ করেন ।কিন্তু শিক্ষামন্ত্রণালয় কোন সুপারিশ এখন পর্যন্ত বাস্তবায়ন করেন নি।

সবশেষে আমরা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হই, সম্প্রতি উচ্চ আদালত অনার্স-মাস্টার্স পর্যায়ে কর্মরত শিক্ষকদের জনবল কাঠামোতে অন্তর্ভুক্ত করে এমপিওভুক্তি প্রদানের জন্য মাউশি ও  শিক্ষামন্ত্রণালয়কে নির্দেশ দিলেও সেটি কার্যকর হয়নি।

তাই প্রধানমন্ত্রী, শিক্ষামন্ত্রী সহ সংশ্লিষ্ট সকল দপ্তরের কাছে আমাদের বিনীত অনুরোধ অবিলম্বে এই সকল শিক্ষকদের জনবল কাঠামো সংশোধন করে জনবল কাঠামোতে অন্তর্ভুক্তি করে  এমপিওভুক্তির ব্যবস্থা করুন।  

সভাপতি(ভারপ্রাপ্ত), কেন্দ্রীয় কমিটি, 
বাংলাদেশ বেসরকারি কলেজ অনার্স - মাস্টার্স শিক্ষক ফেডারেশন, ঢাকা

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর