বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১:১৯ এএম


প্রশ্নোত্তরে নটরডেম কলেজে ভর্তি প্রস্তুতি

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ০৬:৪০, ৪ আগস্ট ২০২০   আপডেট: ০৬:৪২, ৪ আগস্ট ২০২০

নটরডেম কলেজে ভর্তি সার্কুলার প্রকাশ করেছে । ভার্চুয়াল লিখিত ভর্তি পরীক্ষার ভিত্তিতে এবার ছাত্র বাছাই করে নেওয়া হবে । তো এই বিষয়টি নিয়ে অনেকের মনে অনেক প্রশ্ন । সম্পূর্ণ সিদ্ধান্ত কলেজ কর্তৃপক্ষ থেকে নেওয়া হয়েছে । তবুও অনেকে নিটারের সাথে পরিচিত অনেকটা সময় ধরে । সে অনুযায়ী আমরা প্রচুর প্রশ্ন পাই , অনেক সময় বিভিন্ন কমেন্ট দেখি , ধারণাপোষত মন্তব্য দেখি , কাদা ছোঁড়াছুঁড়ি তো আছেই ???? যাই হোক , আমরা বেশ কিছু কমন প্রশ্ন একত্রিত হলে সেটি সাধারণত পোস্ট আকারে দিই , কনফিউশন কাটাতে চেষ্টা করি , আমাদের অভিজ্ঞতা অনুযায়ী । বলে নিই , বর্তমান এতো উন্মুক্ত মিডিয়ার যুগে আমাদের কথার গ্রহণযোগ্যতা তোমাদের কাছে প্রতীয়মান নাও হতে পারে । আমরা শুধু আমাদের কথাগুলো বলছি । সবার থেকে নিজেদের মধ্যে সহনশীল মনোভাব , বুদ্ধিদীপ্ত আচরণ , পারস্পরিক সম্মান বরাবরই আশা করা হয় । তো চলো , কমন প্রশ্ন এবং আমাদের উত্তর দেখা যাক । 

.
#প্রশ্ন_১। ভার্চুয়াল সিলেকশন প্রসেস কী সব মিলায়ে একদম বেস্ট সিলেকশন ওয়ে বলা যায় ?
.
উত্তরঃ না । তাহলে তো এতো বছর এভাবে সরাসরি লিখিত ও মৌখিক ভর্তি পরীক্ষা না নিয়ে কলেজগুলো ভার্চুয়াল পদ্ধতিতেই নিতো । স্বাভাবিকভাবে সরাসরি লিখিত ও মৌখিক নিতে পারলেই বেস্ট হতো । কিন্তু পরিস্থিতি বিবেচনায় , বর্তমান এই দুর্যোগকালীন সময়ে , এটাই বেস্ট সিলেকশন উপায় , যেটা আমার, আমাদের কিংবা আমাদের মতো মানুষের মাথা থেকে আসে নাই । বাংলাদেশের অন্যতম সেরা একটা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকেই এসেছে । আরো উপায় ছিলো , কিন্তু এটাই বেস্ট উপায় বর্তমান পরিস্থিতিতে , বলেই কলেজ কর্তৃপক্ষ মনে করে । আর অবশ্যই বলে রাখা ভালো , নটরডেম কলেজ কর্তৃপক্ষ অনেক বেশি অভিজ্ঞ ,সেটা সবাই জানো , সে ব্যাপারে পরে বলছি । নিশ্চয় তোমরা যেই ব্যাপারগুলো নিয়ে এতো বলছো , সেগুলো অবশ্যই এবং অবশ্যই কলেজ কর্তৃপক্ষের মাথায় আছে ।
.
#প্রশ্ন_২। এভাবে ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে তো কলেজে অযোগ্য ছাত্র পাবে ! অনেকে এমনিই চান্স পেয়ে যাবে !!
.
উত্তরঃ প্রথমত , একটা নির্দিষ্ট গ্রেড না পেলে কোনো কালেই ভর্তি পরীক্ষা দেওয়া যায় নাই , এতে অবশ্যই একধরণের প্রাইমারি সিলেকশন হয় ।
.
দ্বিতীয়ত এবং প্রধানত , কলেজের প্রিন্সিপাল স্যার ( ফাদার ) ২০১২ সাল থেকে সরাসরি কলেজের অধ্যক্ষ হিসেবে কর্মরত আছেন । তারও আগে থেকে গাইডেন্স এবং অন্যান্য মাধ্যমে স্যার কলেজের সাথে জড়িত । অনেকগুলো ভর্তি পরীক্ষা স্যার দেখেছেন । অনেকগুলো পাবলিক পরীক্ষা দেখেছেন । শৃঙ্খলার ক্ষেত্রে মিশনারী শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানগুলো বরাবরই আদর্শ । অনেক অনেক মেধাবী ছাত্র , শিক্ষক – শিক্ষিকা আছে কলেজটিতে । এমনকি অন্যান্য অনেকগুলো ভর্তি পরীক্ষা / বাছাই পরীক্ষা নটরডেম কলেজে সিট পড়ে । ভাইয়া তোমাদের কী মনে হয় , যারা এতোটা বছর ধরে এতো হাজার হাজার ছাত্রের সাথে সরাসরি জড়িত , তাদের বাছাই পরীক্ষা , প্রক্রিয়া সহ এইচএসসি পরীক্ষা সহ অনেকগুলো ভর্তি পরীক্ষার অভিজ্ঞতা আছে , ম্যানেজমেন্টের অভিজ্ঞতা আছে , তারা চিন্তা-ভাবনা না করেই ডিসিশন নিয়েছে ? তোমাদের মনের প্রশ্নগুলো কলেজ কর্তৃপক্ষের মাথায় আসে ভাই , তোমার আপাতত চিন্তা ভাবনা হওয়া উচিত কারো কথাতে বিভ্রান্ত না হয়ে শুধুমাত্র পড়ালেখা করা । বাকিটা সময় হলেই দেখতে পারবে ।
.
#প্রশ্ন_৩। অনলাইনে কীভাবে এক্সাম হবে ?
.
উত্তরঃ এটা অবশ্যই কলেজ অথোরিটির সিদ্ধান্ত , তারা কীভাবে এক্সাম নিবেন ! তবে বিগত কয়েকবছর ধরে নৈর্ব্যত্তিক এবং শর্ট কোয়েশ্চান টাইপ প্রশ্ন থাকতো ।
.
অনলাইনের পরীক্ষাগুলো মূলত অবজেক্টিভ টাইপ হয় । এছাড়াও খালিস্থান টাইপ থাকতে পারে । যেমনঃ একটা গাণিতিক সমস্যার শুধু উত্তর লিখা ।
.
গুগল ডক আপলোড করা হলে , সেখানে তোমরা পূরণ করে দিতে পারো সঠিক অপশনটি । এই বিষয়গুলো নিয়ে অবশ্যই আমাদের সামর্থ্যের মধ্যে বিস্তারিত সহায়তা করবো , এই ক’দিন কি টাইপ পড়া উচিত , কেমন প্রিপারেশন নেওয়া উচিত সবকিছু নিয়েই বলা হবে ।
.
আরো অনেক উপায় আছে অনলাইন পরীক্ষা নেওয়ার । আমরা একটা স্যাম্পল ভিডিও দিবো আজ / কালকে তোমাদের বুঝার সুবিধার্থে । তোমাদের অনেকগুলো প্রশ্নের সমাধান সেখানে পাবে ইনশাআল্লাহ । এবার , এখন পর্যন্ত ভর্তি পরীক্ষার টাইম ডিক্লেয়ার করা হয় নাই , কার কখন ভর্তি পরীক্ষা হবে এগুলো কিছু বলা হয় নাই । ১৬তারিখ সন্ধ্যায় প্রার্থীর নিজ নিজ মোবাইলে এসএমএস এর মাধ্যমে ভর্তি পরীক্ষার তারিখ এবং সময় জানিয়ে দেওয়া হবে ।
.
#প্রশ্ন_৩। আচ্ছা ধরলাম , নটরডেম কলেজের ভর্তি পরীক্ষার ক্ষেত্রে কোনো নজরদারির ব্যবস্থা নাই । যার যেমন খুশি একটা পরীক্ষা দিয়ে দিলো । যদিও এতো সহজ না , আশা করি , কলেজ কর্তৃপক্ষ ভর্তির ব্যাপারে বিস্তারিত জানালে তোমাদের ধারণা পরিষ্কার হবে। তাছাড়া আমরা একটা স্যাম্পল ভিডিও দিবো । তবু ধরলাম , কোনো নজরদারি বাদেই হলো অনেকে কমপ্লেইন করছে , নকল হবে , এই আর কি! ।যে যার মতো , বই দেখে পরীক্ষা দিবে । কারণ , এটা ধরেই কয়েকজন হতাশ হচ্ছে , কিছুক্ষেত্রে অন্যদের বিভ্রান্ত করছে । তাহলে তো যোগ্য বাছাই হলো না ।
.
উত্তরঃ কমন প্লাটফর্মে সবার পরীক্ষা হবে । মানে বুঝো তো ? তুমি যেভাবে পরীক্ষা দিবে , সবাই ঠিক ঐভাবেই দিতে পারবে । যদি এমনই হয় , তোমাদের তো মানা করা হয় নাই , বই না দেখে পরীক্ষা দিতে । সবাই তো বই দেখেই দিবে । ওপেন বুক এক্সাম চ্যালেঞ্জের মতো । ইঞ্জিনিয়ারিং এ একটা সাব্জেক্ট মেশিন ডিজাইনে এমন হয় । পাঠ্যবই নিয়েই পরীক্ষার হল-এ যাওয়া লাগে , সবাই স্যারের সামনে বই খুলেই পরীক্ষা দেয় / অথবা একদম সব সূত্র সহ সব দেওয়া থাকে কোয়েশ্চানে অতিরিক্ত পেপারে । তবু কেন জানি পাশ করা অনেক ক্ষেত্রে টানাটানি হয় । তো যাই হোক , কমন প্লাটফর্ম মানে বুঝসো তো ?
.
এমন যদি হতো , কলেজ বলে দিতো , তোমাদের বিবেকের উপর ছেড়ে দিসি । কেউ দেখে পরীক্ষা দিও না । অভিভাবকরা পাহারা দেওয়ার অনুরোধ রইলো , তাহলেই না তোমরা প্রশ্ন তুলতে পারতা , কয়জন মানবে এই কথা ? তাহলেই না বাছাই প্রক্রিয়া সুষ্ঠু হলো না । কলেজ থেকে তো ভর্তি পরীক্ষার ব্যাপারে কিছুই বলা হয় নাই , মানা করে নাই । সবচেয়ে বড় কথা , কেমনে প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করবে কলেজ , তা না জেনেই ধারণা করা অব্যাহত আছেই । উদ্বেগ থাকতেই পারে , তোমাদের পজিশনে থাকলে আমাদের ও উদ্বেগ থাকতো , কিন্তু কিছু ক্ষেত্রে প্রক্রিয়া না জেনে বুঝেই ধারণা অব্যাহত রাখা , কমেন্টে আরেকজনের সাথে তর্কাতর্কি করা , একেবারেই বুদ্ধিদীপ্ত আচরণ না । আমাদের এই কথাগুলো অনেকের ভালো নাই লাগতে পারে । সেজন্য আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করছি । প্রকৃতপক্ষে , আমাদের মতে , এসব ধ্যান-ধারণা না নিয়ে পড়ালেখা করাটাই সবচেয়ে বেস্ট ডিসিশন হবে তোমাদের । সময়ই সব জানিয়ে দিবে তোমাদের । তোমরা তোমাদের পরিশ্রম করো ।
.
#প্রশ্ন_৪। বড় ভাই/বোন পরীক্ষা দিয়ে দিবে । যদি কোনো নজরদারির ব্যবস্থা না থাকে , তাহলে কেউ কেউ এমন করবে ! এটা তাহলে সঠিক বাছাই উপায় হলো ?
.
উত্তরঃ কেউ চাইলে , এই উত্তরের শেষ প্যারা দেখো । মাঝের কথাগুলো এভোয়েড করো ।
.
তোমাকে জেএসসি এর সিলেবাস থেকে বাংলা প্রশ্ন করলে পারবে তুমি ? একই সাথে একজন ভাই , এসএসসির বাংলা পাঠ্যবই , কবি পরিচিতি , মূল কথা , ইংরেজি সিলেবাস , পদার্থবিজ্ঞানের ডাটা , বায়োলজির যত তথ্য শৈবাল-ছত্রাক সম্বন্ধীয় বা যাই হোক , রসায়নের বিভিন্ন আকরিকের নাম , সংকেত সব মুখস্থ পারে ? ভাইরে , তুমি বলতেসো , মাঝে এতোদিন পড়ার গ্যাপ থাকায় , এসএসসি এর অনেক কিছু ভুলতে বসেছি । তুমি ১/১.৫ মাস না পড়েই ভুলতে বসছো ! কি বলসো , বুঝসো তো ? ভাই , অনেক বড় ভাই , স্কুলের টিচারদের একসাথে করে পরীক্ষা দিয়ে দিবে অনেকে ?
তা এই সুবিধা তোমার আছে তো ? একেক বিষয়ে একেকজন দক্ষ বসায়ে তারপরে সবাই মিলে পরীক্ষা দিয়েই চান্স !! ও ভালো কথা , সাধারণ জ্ঞানেও একজন দক্ষ প্রয়োজন হবে । তা এই সুবিধা তোমার যেমন নাই , কারো নাই , খালি আরেকজনরে দোষারোপ করে , আরেকজনের দিকে আঙ্গুল না তুলে নিজেকে নিয়েই ভাবো না । তুমি যেই এলাকায় থাকো , সেখানে বিভিন্ন বিষয়ে দক্ষ বিভিন্ন বড় ভাই / বোন থাকতে হবে ।
.
এবার শেষ প্যারা , যেটা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ , কলেজ কী বলেছে , এভাবে ভর্তি পরীক্ষা নিবে ? নাকি তুমি ধারণা করে না জেনে কমেন্ট করছো ? গুগল ক্লাসরুম খুলে যে অনলাইন লাইভ স্ট্রিমিং এর ব্যবস্থা থাকবে না , সেটা কলেজ থেকে বলেছে এখনই ? বেটার না , নিজের পড়াটা নিজে পড়ে , ফেসবুকে অল্প ক’দিন সময় কম দিয়ে , পাঠ্যবইয়ের সাথে সম্পর্ক তৈরী করো ।
.
#প্রশ্ন_৫। এছাড়াও আরো কত কত প্রশ্ন যে থাকে । কয়েকটি জিজ্ঞাসা এবং উত্তর তুলে ধরছি ।
.
#টাইপ ১- আমার তো স্মার্টফোন নাই , কীভাবে পরীক্ষা দিবো ?
-স্মার্টফোন ১/২ ঘন্টার জন্য কারো কাছে থেকে ধার নিতে পারবে । ভাড়া নিতে পারবে । আত্মীয়-স্বজন , পাড়া-প্রতিবেশি , বন্ধু-বান্ধব কারো কাছে না থাকলে , যেকোনো কম্পিউটারের দোকান বা ফ্লেক্সি বা এমন কোনো জায়গায় বলো , তুমি ল্যাপটপ বা মোবাইলটি ঘন্টা দুয়েক ব্যবহার করতে চাও ।
.
#টাইপ ২- অনেকে জানায় , অন্য অনেক ছাত্রের এলাকায় নেটওয়ার্ক নাই থাকতে পারে । সেক্ষেত্রে ?
.
-প্রথমত , সহযোগিতাপূর্ণ মনোভাবের জন্য ধন্যবাদ , যেখানে তুমি অন্যদের নিয়ে ভাবছো ।
.
দ্বিতীয়ত , সাধারণত , অনেক বেশি প্রত্যন্ত কিছু এলাকায় এখন মোবাইল নেটওয়ার্ক খারাপ থাকতে পারে । আইডিয়া নাই । যাই হোক , ধরলাম নেটওয়ার্ক অনেক খারাপ । তো যদি নটরডেম কলেজে ভর্তি পরীক্ষা হতো , তাহলে তাকে সেই প্রত্যন্ত এলাকা থেকে শহরে যাইতে হইতো , বাস / ট্রেনে করে আরো কয়েকটি জেলা পার হয়ে , ঢাকার মতিঝিলে / আরামবাগ এরিয়াতে এসে ভর্তি পরীক্ষা দিতে হতো । আর এখন , অল্প একটু কষ্ট করে , ভালো নেটওয়ার্ক পাওয়া যায় , এমন জায়গায় থাকতে পারবে না পরীক্ষার সময়ে ?
.
#টাইপ ৩- যদি কারেন্ট চলে যায় , তাহলে এর দায়ভার কে নিবে ?
-মোবাইল ডাটা কারেন্ট গেলে , অফ হয়ে যায় না ।
.
#প্রশ্ন_৫। এভাবে আর যাই হোক , সুষ্ঠু বাছাই হবেই না , যারাই সিদ্ধান্ত নিক , বাজে সিদ্ধান্ত হয়েছে , খারাপ ছাত্র দিয়ে ভরপুর হয়ে যাবে কলেজ ?
.
উত্তরঃ এক্ষেত্রে দুইটি বছর সময় দিতে হবে । যেহেতু অযোগ্য দিয়ে কলেজ ভরে যাবে , স্বাভাবিকভাবে এই ব্যাচ থেকে নটরডেমের এইচএসসি রেজাল্ট যেমন খারাপ হবে , এডমিশনেও খারাপ ফলাফল করবে অন্যান্য বছরের তুলনায় এই ব্যাচ ! তো এখন এতো উৎকন্ঠিত না হয়ে , এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফল এবং এডমিশনের ফলাফল পর্যন্ত অপেক্ষা করা ভালো বোধহয় । যদি ভালো না করে এই ব্যাচ , তাহলে তোমার কথা প্রমাণিত হলো , আর যদি ভালো করে , তাহলে তো এতো ভাববার দরকার ছিলো না বলেই প্রতীয়মান হবে ।
.
#প্রশ্ন_৬। আমার মনে হয় , নম্বরের ভিত্তিতেই নিয়ে নিবে ছাত্র । ভর্তি পরীক্ষা ফর্মালিটিজ ।
.
উত্তরঃ এটা তো ফলাফল দিলেই বুঝা যাবে , কীসের ভিত্তিতে নিয়েছে ! তবে সার্কুলারেই বলা আছে , এসএসসি এর ফলাফল এবং ভর্তি পরীক্ষার নম্বরের ভিত্তিতেই নেওয়া হবে । বিশ্বাস করো , এটাই বেস্ট ডিসিশন হবে , এখন শুধুমাত্র ভর্তি পরীক্ষার জন্য প্রিপারেশন নেওয়া । অনেকের আসলে অনেক কিছু এযাবতকাল মনে হয়েছে , আপাতত এই কয় দিন আর কিছু মনে না করে পড়ো । আরেকটা সমস্যা হচ্ছে , আমরা আরেকজনের মন্তব্য দেখে নিজে বিভ্রান্ত হই । যেমন ধরো , একটা জাতীয় দৈনিকের সোর্স দিয়ে বা শিক্ষা বোর্ডের ওয়েবসাইটেই পাওয়া যাচ্ছে এমন একটা তথ্য আমরা পেইজে পাব্লিশ করলাম । অনেকে সেই জাতীয় দৈনিক কিংবা ওয়েবসাইটেও একবার যায় না , না গিয়েই , আমার মনে হয় , এটা ফেইক । দেখেন দেখেন , এই এই সমস্যা আছে !! আর কয়েকজন এতেই বিভ্রান্ত হয়ে , আসলেই মনে হয় ফেইক । অথচ , একবারের জন্য ও কেউ রেফারেন্সে গিয়ে দেখে না , তাহলেই তো বুঝে যায় , সত্যি নাকি মিথ্যা!! ফেসবুকে কমেন্ট টাইপ করা যতটা সোজা , গুগল করা বোধহয় ততোটাই কঠিন অনেকের জন্য 

নেট্টার: ফেসবুক থেকে নেয়া
.

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর