সোমবার ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ৪:১২ এএম


প্রধানমন্ত্রী দেশে ফেরার পর কোটা বাতিলের প্রজ্ঞাপন

আল ইমরান

প্রকাশিত: ০৭:০৭, ২৮ এপ্রিল ২০১৮   আপডেট: ২১:৩৯, ২৯ এপ্রিল ২০১৮

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অস্ট্রেলিয়া সফর শেষে দেশে ফেরার পর সরকারি চাকরিতে কোটা বাতিলের প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক।

শুক্রবার (২৭ এপ্রিল) রাতে কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের একটি প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠকের পর এ আশ্বাস দেন তিনি। নানক বলেন, “প্রধানমন্ত্রীর কোটা বাতিলের ঘোষণা কবে কীভাবে কার্যকর হবে, তা বাস্তবায়নের প্রক্রিয়া দ্রুত নেওয়া হবে। রাষ্ট্রীয় সফরে তিনি দেশের বাইরে রয়েছেন। দেশে ফেরার পর স্বল্প সময়ের মধ্যে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে।”

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, তারা আগামী ৭ মে পর্যন্ত কর্মসূচি স্থগিত করেছে। তাদের কোনো ধরনের হয়রানি করা হবে না বলেও আশ্বস্ত করা হয়েছে।

কোটা সংস্কার আন্দোলন চলার সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বিক্ষোভ ও ভাঙচুরের ঘটনায় মামলাগুলোর বিষয়ে জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, সেগুলো পর্যায়ক্রমে প্রত্যাহার করা হবে। তাদের কোনো ধরনের হয়রানি করা হবে না বলেও আশ্বস্ত করা হয়েছে। তবে উপাচার্যের বাড়িতে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনায় দোষিদের চিহ্নিত করে শাস্তি দেওয়া হবে। এই দোষিদের শাস্তি আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরাও চায়।

রাজধানীর মানিক মিয়া অ্যাভিনিউ–সংলগ্ন ন্যাম ভবনে কোটা সংস্কার আন্দোলনের ১৫ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দলের সঙ্গে নানকের এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

এর আগে ৮ এপ্রিল থেকে পাঁচ দিন ধরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ দেশের প্রায় সব পাবলিক ও প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলন শুরু হলে ১২ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতীয় সংসদের অধিবেশনে কোটা পদ্ধতি বাতিল ঘোষণা করেন।

এদিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাষ্ট্রীয় সফরে ২৬ এপ্রিল অস্ট্রেলিয়ায় গিয়েছেন। ২৯ এপ্রিল অস্ট্রেলিয়া ত্যাগ করে পরের দিন দেশে ফিরে আসার কথা রয়েছে প্রধানমন্ত্রীর।

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর