রবিবার ১৭ নভেম্বর, ২০১৯ ২৩:১৩ পিএম


প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাতের অপেক্ষায় প্রাথমিক শিক্ষক নেতারা

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ২১:২০, ৩ নভেম্বর ২০১৯   আপডেট: ১৬:৩৪, ৪ নভেম্বর ২০১৯

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতের অপেক্ষায় আছেন প্রাথমিক শিক্ষক নেতারা। গত ৩১ অক্টোবর প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেনের সঙ্গে তাঁর মিন্ট রোডের সরকারি বাসভবনে শিক্ষক নেতাদের বৈঠক হয়। প্রতিমন্ত্রী ওই বৈঠকে শিক্ষক নেতাদের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করিয়ে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন শিক্ষক নেতাদের দাবি ।

বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক ঐক্য পরিষদের প্রধান মুখপাত্র মো. বদরুল আলম রোববার (৩ নভেম্বর) রাতে এডুকেশন বাংলাকে জানান, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী, আমরা প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাতের অপেক্ষায় প্রহর গুণছি। আশা করছি ২/ ৪ দিনের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতের জন্য শিক্ষক নেতাদের তালিকা চাওয়া হবে।

গত ৩১ অক্টোবর শিক্ষক নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন ১৩ নভেম্বরের আগেই প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে শিক্ষক নেতাদের সাক্ষাৎ করিয়ে দেবেন। সমাপনী পরীক্ষা সামনে রেখে কঠোর আন্দোলনে না যাওয়ারও অনুরোধ করেন প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন। ২৩ অক্টোবর শহীদ মিনারে মহাসমাবেশে শিক্ষকদের ওপর পুলিশের লাঠিচার্জের ঘটনায় প্রতিমন্ত্রী দুঃখ প্রকাশ করেন ।

উল্লেখ্য, প্রধান শিক্ষকদের জাতীয় বেতন স্কেলের দশম গ্রেডে ও সহকারী শিক্ষকদের ১১তম গ্রেডে বেতন দেয়ার দাবিতে গত ১৪ অক্টোবর সারাদেশের ৬৫ হাজারের বেশি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত কর্মবিরতি পালন করা হয়। পরদিন ১৫ অক্টোবর পালন করা হয় তিন ঘণ্টার কর্মবিরতি। ১৬ অক্টোবর এসব বিদ্যালয়ে অর্ধদিবস কর্মবিরতি পালন করেন তারা। এছাড়া গত ১৭ অক্টোবর পর্যন্ত অর্ধদিবস কর্মবিরতিতে যান শিক্ষকরা।

আন্দোলনের ধারাবাহিকতায় ২৩ অক্টোবর শহীদ মিনারে মহাসমাবেশে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে শিক্ষকরা জমায়েত হতে থাকলে পুলিশ তাদের ওপর দফায় দফায় লাঠিচার্জ করে ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এর আগে ২১ অক্টোবর ডিপিই’র মহাপরিচালক ড. এ এফ এম মনজুর কাদির স্বাক্ষরিত এক নির্দেশনায় সমাবেশে যোগ না দিয়ে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের ছুটির দিনে কর্মস্থলে উপস্থিত থাকার নির্দেশ দেয়া হয়। যেসব শিক্ষক মহাসমাবেশে অংশ গ্রহণ করেছেন তাদের মধ্যে হাজার হাজার শিক্ষককে শোকজ নোটিশ দেয়া হয়।

 

এডুকেশন বাংলা / এসআই

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর