বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই, ২০১৯ ২১:৩০ পিএম


প্রথম জিআরএমএফ স্কলারশিপ পেলেন ডা. দেলোয়ার

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১০:৪৭, ২৯ জুন ২০১৯   আপডেট: ১০:৪৮, ২৯ জুন ২০১৯

শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শেকৃবি) এনিম্যাল সায়েন্স ও ভেটেরিনারি মেডিসিন অনুষদের মেডিসিন ও পাবলিক হেলথ বিভাগের প্রভাষক ডা. দেলোয়ার হোসেন জিআরএমএফ (গুস্টাভ রোজেনবার্গার মেমোরিয়াল ফান্ড) স্কলারশিপ ২০১৯ অর্জন করেছেন। তিনি জানান, বাংলাদেশ হতে তিনিই প্রথম এই স্কলারশিপের জন্য মনোনীত হলেন।

ডা. দেলোয়ার আডার হেলথ বাংলাদেশ (Udder Health Bangladesh) এর গবেষণা সহকারী হিসেবে কাজ করছেন যা বাংলাদেশ-সুইডেন-নেদারল্যান্ডসের একটি যৌথ প্রকল্প এবং সুইডেন সরকার এর অর্থায়ন করছেন। এই প্রকল্প টিমের সদস্যরা হচ্ছেন ড. ইউলভা পারসন (ন্যাশনাল ভেটেরিনারী ইনস্টিটিউট, সুইডেন), ড. গেরিট কুপ (ইউট্রেখ বিশ্ববিদ্যালয়, নেদারল্যান্ডস), ড. মারজোলিন ডার্কস (ওয়াগেনেনিন ইউনিভার্সিটি অ্যান্ড রিসার্চ, নেদারল্যান্ডস), প্রফেসর ড. মো. আহসানুল হক (সিভাসু) এবং প্রফেসর ড. মো. মিজানুর রহমান (সিভাসু)। মূলত গাভীর ওলানের স্বাস্থ্য সুরক্ষার জন্য কাজ করে যাচ্ছেন তারা।

আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে গবাদিপ্রাণির ওষুধের মানোন্নয়ন ও বৃহত্তর ক্ষেত্রে গবাদিপ্রাণি সংক্রান্ত গবেষণা বৃদ্ধিতে সারা বিশ্বে তরুণ বিজ্ঞানীদের উদ্বুদ্ধ করতে গুস্তাভ রোজেনবার্গার মেমোরিয়াল ফান্ড (জিআরএমএফ) স্কলারশিপ প্রদান করা হয়। এতে মনোনীত ব্যক্তিকে ১০ হাজার ইউরো প্রদান করা হয়ে থাকে।

আগামী সেপ্টেম্বরে নেদারল্যান্ডসের ডেন বোসে অনুষ্ঠিতব্য ‘ইউরোপীয় বোভাইন কংগ্রেস’ সম্মেলনে পুরস্কারের মাধ্যমে এই স্কলারশিপের অর্থ প্রদান করা হবে। সম্মেলনে তিনি `Epidemiological looking into Subclinical Mastitis in Dairy cows in Chattogram, Bangladesh` শিরোনামে তার গবেষণা কার্য উপস্থাপন করবেন।

পরে তিনি ড. গেরিট কুপ এর তত্ত্বাবধানে নেদারল্যান্ডসের ইউট্রেখ বিশ্ববিদ্যালয়ে গবাদিপ্রাণির ওলানের জন্য ক্ষতিকর ওলান প্রদাহ রোগের জীবাণু স্ট্যাফাইলোকক্কাস অরিয়াস নিয়ে তিন মাস গবেষণা করবেন।

ডা. দেলোয়ার হোসেন জাগো নিউজকে বলেন, স্কলারশিপটি অর্জন করতে পারায় আমি খুবই আনন্দিত। গাভীর ওলান নিয়ে আমি ইতোমধ্যে কাজ করছি। ভালো মানের গবেষণা করার জন্য পর্যাপ্ত অর্থের প্রয়োজন হয়। তবে এই স্কলারশিপ আমার কাজের ক্ষেত্রকে আরও প্রসারিত করবে। তিনি আডার হেলথ বাংলাদেশসহ প্রকল্প টিমের সকল সদস্যদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। পরিশেষে তিনি সকলের কাছে দোয়া চেয়েছেন।

 

এডুকেশন বাংলা/এজেড

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর