বুধবার ২১ অক্টোবর, ২০২০ ১৫:৪৭ পিএম


প্রতি স্কুলের দুজন শিক্ষককে বিশেষ প্রশিক্ষণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ০৭:০০, ১ অক্টোবর ২০২০  

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার পর শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে নতুন উদ্যোগ নিচ্ছে সরকার। স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে ও অভিভাবকদের মধ্যে সচেতনতা তৈরিতে প্রতি স্কুলের দুজন শিক্ষককে বিশেষ প্রশিক্ষণ দেয়া হবে।

বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) শিক্ষা বিষয়ক সাংবাদিকদের সঙ্গে এক সভায় (ভার্চুয়াল) এ তথ্য জানান মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক গোলাম ফারুক।

এ সময় অন্তত একজন মহিলা শিক্ষক অন্তর্ভুক্ত রাখার প্রতি জোর দেন শিক্ষামন্ত্রী ডাক্তার দীপু মনি।

ভার্চুয়াল মিটিংয়ের যুক্ত ছিলেন ছিলেন- শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মাহাবুব হোসেন, কারিগরি ও মাদরাসা বিভাগের সচিব মো. আমিনুল ইসলাম খান।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘আমরা শিক্ষক, অভিভাবক, শিক্ষার্থীর স্বাস্থ্যগত দিক খেয়াল রাখছি। আমাদের চেষ্টা অব্যাহত আছে। বিশ্বের বিভিন্ন দিকও আমরা নজরে আছে।’

তিনি বলেন, ‘আজকের বাস্তবতার সঙ্গে তাল মিলিয়ে আমরা শিক্ষাব্যবস্থাকে যুগোপযোগী করতে চাই। পৃথিবী পরিবর্তনশীল। আমরা সে পরিবর্তনের সঙ্গে থাকতে চাই।’

জানা গেছে, স্বাস্থ্য সচেতনতা বিষয়ে প্রত্যেক স্কুলে অন্তত দুজনকে প্রশিক্ষণ দেয়ার ব্যবস্থা করা হবে। আর এতে একজন মহিলা শিক্ষক অবশ্যই অন্তর্ভুক্ত থাকবেন।

এ সময় মাউশির মহাপরিচালক অধ্যাপক সৈয়দ গোলাম ফারুক বলেন, ‘শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার পর অভিভাবকরা যাতে তাদের সন্তানকে স্কুলে পাঠায় পাঠাতে ভীত না হয় সেজন্য এ কাউন্সেলিং করা হবে।’

পাশাপাশি সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে একজন করে মনোবিজ্ঞানী নিয়োগ দেয়ার চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর