বৃহস্পতিবার ২২ আগস্ট, ২০১৯ ১৯:০৭ পিএম


প্রণব মুখার্জির হাতে আনুষ্ঠানিকভাবে ‘ভারতরত্ন’ সম্মাননা

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১২:২৬, ৯ আগস্ট ২০১৯  

ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জির হাতে আনুষ্ঠানিকভাবে ‘ভারতরত্ন’ সম্মাননা তুলে দেওয়া হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার দরবার হলে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তাঁর হাতে এই সম্মাননা তুলে দেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। এ নিয়ে পশ্চিমবঙ্গের ছয়জনের হাতে উঠল এই সর্বোচ্চ নাগরিক সম্মাননা।

গত ২৬ জানুয়ারি প্রজাতন্ত্র দিবসের আগে প্রণব মুখার্জিকে সর্বোচ্চ এই নাগরিক সম্মাননা প্রদানের কথা ঘোষণা করা হয়। ঘোষণার পর গতকাল এই খেতাব তাঁর হাতে আনুষ্ঠানিকভাবে তুলে দেওয়া হয়। পাঁচ দশকের বেশি সময় ধরে দেশের জন্য তাঁর অনন্য অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে এই সম্মাননা পেলেন তিনি।

গতকাল অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ভারতের উপরাষ্ট্রপতি ভেংকাইয়া নাইডু, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং, অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামনসহ বিশিষ্টজনেরা। প্রণব মুখার্জিকে ভারতরত্ন সম্মাননা প্রদানের পর উপরাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী চেয়ার ছেড়ে উঠে তাঁকে শুভেচ্ছা জানান।

প্রণব মুখার্জি ছিলেন ভারতের প্রথম বাঙালি রাষ্ট্রপতি। ২০১২ সালের ২৫ জুলাই ভারতের ১৩তম রাষ্ট্রপতি হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। ২০১৭ সালের ২৫ জুলাই তাঁর মেয়াদ শেষ হয়। ১৯৩৫ সালের ১১ ডিসেম্বর পশ্চিমবঙ্গের বীরভূমের কীর্ণাহারে জন্ম নেন এই রাজনীতিবিদ। রাজনৈতিক জীবনও শুরু পশ্চিমবঙ্গ থেকে। তিনি বিভিন্ন সময় ভারতের কেন্দ্রীয় অর্থ, প্রতিরক্ষা, পররাষ্ট্রমন্ত্রীসহ পরিকল্পনা কমিশনের উচ্চ পদে দায়িত্ব পালন করেছেন। তাঁর স্ত্রী শুভ্রা মুখার্জি ২০১৫ সালে মারা যান। বর্তমানে তাঁর দুই ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছেন। ২০০৮ সালে রাষ্ট্রীয় সম্মান পদ্মভূষণ খেতাব অর্জন করেন তিনি।

২৫ জানুয়ারি ভারতরত্ন সম্মাননার জন্য প্রণব মুখার্জির নাম ঘোষণার পর তাঁকে অভিনন্দন জানান সব দলের রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বরা। কংগ্রেসের সাবেক সভাপতি রাহুল গান্ধী এক টুইট বার্তায় তাঁকে অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, ‘ভারতরত্ন সম্মাননা পাওয়ায় প্রণবদাকে অভিনন্দন। আমাদের একজনের অপরিসীম অবদান যে স্বীকৃতি পেল, তা কংগ্রেসের কাছে অত্যন্ত গর্বের।’

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি টুইট করেন, ‘প্রণব মুখার্জি আমাদের সময়ের অসাধারণ রাষ্ট্রনায়ক। নিঃস্বার্থ ও অক্লান্তভাবে দশকের পর দশক ধরে দেশের সেবা করেছেন। তাঁর প্রজ্ঞা ও মেধার তুলনা হয় না। তাঁকে ভারতরত্ন দেওয়ায় আমি খুশি।’

ভারতরত্ন পাওয়ার পর প্রণব মুখার্জি এক টুইট বার্তায় তাঁর প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে বলেন, ‘এই প্রাপ্তি গোটা জীবনের কাজের স্বীকৃতি তো বটে, বাঙালি হিসেবেও গর্বিত। আমি সব সময় বলেছি, আজ আবার বলছি, এই মহান দেশের মানুষদের যতটা না দিতে পেরেছি, তার চেয়ে অনেক বেশি পেয়েছি।’

প্রণব মুখার্জির আগে পশ্চিমবঙ্গ থেকে আরও ছয়জন এই ভারতরত্ন সম্মাননায় ভূষিত হয়েছেন। তাঁরা হলেন চিকিৎসক বিধানচন্দ্র রায় (১৯৬১), মাদার তেরেসা (১৯৮০), সত্যজিৎ রায় (১৯৯২), অরুণা আসফ অলি (১৯৯৭), অধ্যাপক অমর্ত্য সেন (১৯৯৯), পণ্ডিত রবিশঙ্কর (১৯৯৯)।


এডুকেশন বাংলা/এজেড

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর