সোমবার ১৮ নভেম্বর, ২০১৯ ০:১৭ এএম


পায়ে লিখে জেডিসি পরীক্ষা দেয়া রাসেলের পাশে ইউএনও

সিংড়া (নাটোর) প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ২০:৩৭, ৭ নভেম্বর ২০১৯  

দুটি হাত ও একটি পা না থাকলে শিক্ষার আলো থেকে বঞ্চিত হয়নি কিশোর রাসেল। একমাত্র পায়ের আঙুলের ফাঁকে কলম রেখে জেডিসি পরীক্ষায় অংশ নেয় সে। এ ঘটনার খবর পেয়ে সেই রাসেলের পাশে দাঁড়ালেন সিংড়ার ইউএনও সুশান্ত কুমার মাহাতো।

বৃহস্পতিবার দুপুরে সিংড়া শোলাকুড়া ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসা কেন্দ্র পরিদর্শনে আসেন ইউএনও সুশান্ত কুমার মাহাতো। এ সময় প্রতিবন্ধী রাসেলের লেখাপড়ার প্রতি প্রবল আগ্রহ আর অদম্য স্পৃহা দেখে তিনি মুগ্ধ হন।

পরে নগদ অর্থ ও একটি হুইল চেয়ার প্রদানসহ তার লেখাপড়ার দায়িত্ব নেন। এছাড়াও গৃহহীনদের জন্য দুর্যোগসহনীয় বাসগৃহ নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় রাসেলের জন্য একটি গৃহ নির্মাণ করে দেয়ার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন।

সিংড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুশান্ত কুমার মাহাতো বলেন, রাসেলের যে দুই হাত ও একটি পা নেই এটা কোনো বাধা নয়, মনোবলটাই আসল। তার উচ্চশিক্ষা চালিয়ে যেতে সবরকম সহযোগিতা করা হবে। আর অত্র উপজেলায় একটি শিক্ষা কল্যাণ ট্যাস্ট অচিরেই করা হবে। তাছাড়া তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকের পরামর্শক্রমে তার জন্য একটি দুর্যোগসহনীয় বাসগৃহ নির্মাণ করে দেয়ারও প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন।

তিনি আরও বলেন, ইতিমধ্যে জেলা প্রশাসক মহোদয় তার লেখাপড়ার জন্য ২৫ হাজার টাকা বরাদ্দ করেছেন।

প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী রাসেল মৃধা সিংড়া পৌর শহরের শোলাকুড়া মহল্লার দিনমজুর আবদুর রহিম মৃধার ছেলে। অভাব-অনটনের মাঝেও প্রতিবন্ধী রাসেল মৃধার লেখাপড়ার প্রতি আলাদা স্পৃহা দেখে তার দরিদ্র বাবা-মা হাল ছাড়েননি। তার উচ্চশিক্ষার সেই স্বপ্ন আজ পূরণ হতে চলেছে।

এডুকেশন/কেআর

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর