রবিবার ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ৫:৪৭ এএম


পাকিস্তানের বিশ্বকাপ বিজ্ঞাপনে ভারতীয় সেই পাইলটকাণ্ড

এডুকেশন বাংলা ডেস্ক:

প্রকাশিত: ২০:২৯, ১২ জুন ২০১৯  

মাঠের খেলা আর মাঠে নেই; ছড়িয়ে গেছে দেশেরও সীমানা। ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে হতে যাওয়া বিশ্বকাপ ক্রিকেট ম্যাচ নিয়েই এই উত্তেজনা।

আকাশসীমা অতিক্রম করে হামলা চালানোর সময় পাকিস্তানের হাতে আটক ভারতীয় পাইলট অভিনন্দন বর্তমানকে নিয়ে পাকিস্তানের পক্ষ থেকে যে ভিডিও ছড়ানো হয়েছিল; সেই আদলে বানানো হয়েছে একটি টেলিভিশন বিজ্ঞাপন।

বিবিসি বলছে, আগামী ১৬ জুন এবারের বিশ্বকাপে প্রথমবারের মতো মুখোমুখি হতে যাওয়া ভারত-পাকিস্তানের ম্যাচ নিয়ে যত উত্তেজনা; ঠিক তেমনই উত্তেজনা দেখা দিয়েছে পাকিস্তানের তৈরি ওই বিজ্ঞাপন নিয়েও।

বিজ্ঞাপনটিতে দেখা যায়, পাইলট অভিনন্দনের মতো দেখতে এক ব্যক্তিকে চায়ের কাপ হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। একের পর এক প্রশ্ন করা হচ্ছে তাকে। অভিনন্দনকেও একইভাবে প্রশ্ন করা হয়েছিল।

অভিনন্দন যেভাবে প্রশ্নের উত্তর দিতে অস্বীকার করেছিলেন সেই একইভাবে ক্রিকেট নিয়েও উত্তর দিতে অস্বীকার করছেন বিজ্ঞাপনে থাকা ব্যক্তিটি। এক পর্যায়ে চায়ের প্রশংসা করেন তিনি। এরপর চায়ের কাপ নিয়ে উঠে দাঁড়ালে তার হাত থেকে কাপ নিয়ে নেওয়া হয়।

বিজ্ঞাপনের শেষে লেখা ভেসে ওঠে `দেশেই আসুক বিশ্বকাপ।` এরই মধ্য বিজ্ঞাপনটি নিয়ে ব্যপাক সমালোচনা শুরু হয়েছে।

ভারতীয়দের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিক কোনও প্রতিবাদ জানানো না হলেও দেশের `বীর` পাইলটকে নিয়ে এমন ভিডিও বানানোয় ফেটে পড়েছেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহারীরা।

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ভারতনিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরের পুলওয়ামায় দেশটির আধা সামরিক বাহিনীর গাড়িবহরে আত্মঘাতী হামলায় ৪০ জনেরও বেশি নিহত হন, যে ঘটনার দায় স্বীকার করে পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মুহাম্মদ। তবে পাকিস্তান সরকার এই ঘটনায় সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ অস্বীকার করে।

এরই মধ্যে পুলওয়ামা হামলার জবাব দিতে ২৬ ফেব্রুয়ারি ভোরে পাকিস্তানের ভেতরে বিমান হামলা চালায় ভারত। সেখানে ভারতীয় বিমান বাহিনীর অভিযানে ৩০০ জঙ্গি নিহত হয় বলে দাবি ভারতের। তবে পাকিস্তান এই দাবি প্রত্যাখ্যান করে।

দুই দেশের মধ্যে চলমান উত্তেজনার মধ্যে ২৭ ফেব্রুয়ারি ভারতের পক্ষ থেকে পাকিস্তানের একটি এবং পাকিস্তানের পক্ষ থেকে ভারতের দুটি বিমান ভূপাতিত করার দাবি করা হয়।

এরপর প্রথমে ভারতের দুইজন পাইলট এবং তার কয়েক ঘণ্টার মধ্যে এক পাইলটকে আটকের কথা জানায় পাকিস্তানের সেনাবাহিনী। এক ভিডিওতে পাইলট অভিনন্দনকে রক্তাক্ত অবস্থায় দেখা গেলেও পরের ভিডিওতে তাকে স্বাভাবিক অবস্থায় চা পান করতে দেখা যায়।

নানা নাটকীয়কতার পর অবশেষে পহেলা মার্চ পাঞ্জাবের ওয়াঘা-আত্তারি সীমান্ত দিয়ে পাইলট অভিনন্দন বর্তমানকে ফিরিয়ে দেয় পাকিস্তান।

এডুকেশন বাংলা/একে

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর