শুক্রবার ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১০:৫০ এএম

Sonargaon University Dhaka Bangladesh
University of Global Village (UGV)

পরীক্ষা কেন্দ্রে নির্বাচনী সভা করলেন এমপি

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৮:৩৮, ৬ ডিসেম্বর ২০১৮  

রাজশাহীর তানোর উপজেলার চাপড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের বার্ষিক পরীক্ষা চলাকালে নির্বাচনী সভা করেছেন স্থানীয় সংসদ সদস্য (এমপি) ওমর ফারুক চৌধুরী। বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত উপজেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের নিয়ে ওই বিদ্যালয়ে সভা করেন তিনি।

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রাজশাহী-১ (তানোর-গোদাগাড়ী) আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ওমর ফারুক চৌধুরী। নবম ও দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও এই আসনের এমপি তিনি।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সকালে তানোর পৌরশহরের চাপড়া উচ্চ বিদ্যালয় চত্বরে বিপুল সংখ্যক দর্লীয় নেতাকর্মী জড়ো করেন এমপি ওমর ফারুকচৌধুরী। সকাল ১০টার দিকে বিদ্যালয়ের একটি শ্রেণিকক্ষে সভা শুরু হয়। ওই সময়ে বিদ্যালয়ের অন্যান্য শ্রেণিকক্ষে ষষ্ঠ, সপ্তম ও নবম শ্রেণির বার্ষিক পরীক্ষা শুরু হয়। তাছাড়াও পাশেই চাপড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিশু শিক্ষার্থীদেরও সমাপনী পরীক্ষা শুরু হয়। নেতাকর্মীদের উপস্থিতিতে পরীক্ষার পরিবেশ মারাত্মকভাবে বিঘ্নিত হয় বলে অভিযোগ অভিভাবকদের।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি খাদেমুন নবী চৌধুরী বাবুর সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন এমপি ওমর ফারুক চৌধুরী।

সভায় আওয়ামী লীগ নেতা ও জেলা পরিষদের সদস্য আব্দুস সালাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল-মামুন, দফতর সম্পাদক ও শিক্ষক নেতা জিল্লুর রহমান, উপজেলা যুবলীগ সভাপতি লুৎফর হায়দার রশিদ ময়না, সম্পাদক জুবায়ের ইসলাম, আওয়ামী লীগ নেতা ও ইউপি চেয়ারম্যান মজিবর রহমান, আবুল কাশেম, আব্দুল মালেক, মোসলেম উদ্দিন, আব্দুল মতিন, আতাউর রহমান, তানোর পৌর যুবলীগের সভাপতি রাজিব সরকার হিরো প্রমুখ বক্তব্য দেন।

সভায় এমপি ওমর ফারুক চৌধুরী আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীককে বিজয়ী করতে নানান নির্দেশনাও দেন।

এদিকে বিদ্যালয়ে পরীক্ষা চলাকালীন নির্বাচনী সভা আয়োজনের প্রতিবাদ জানিয়েছে এলাকার সচেতন মহল। এই সভাকে নির্বাচনের আচরণবিধি লঙ্ঘনের শামিল বলছেন কেউ কেউ।

বিষয়টি স্বীকার করে সভায় অংশ নেয়া কয়েকজন আওয়ামী লীগ নেতা বলেন, তারা আগে জানতেন না বিদ্যালয়টিতে পরীক্ষা চলছে। জানতে পেরে দ্রুত সভা শেষ করে বিদ্যালয় ত্যাগ করেছেন।

ওমর ফারুক চৌধুরীর বিরোধী নেতা হিসেবে পরিচিত উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও মুন্ডুমালা পৌরসভার মেয়র গোলাম রাব্বানী জানান, সেখানে উপজেলা আওয়ামী লীগের বিশেষ বর্ধিত সভা হয়েছে। কিন্তু দলের সভাপতি হিসেবে তিনি কিছুই জানেন না। পরে নেতাকর্মীদের মুখে শুনেছেন। বিদ্যালয়ে এমন আয়োজনের প্রতিবাদ জানান তিনি।

এ নিয়ে চাপড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জিল্লুর রহমান বলেন, বিদ্যালয়ে ষষ্ঠ ও নবম শ্রেণির ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষা এবং সপ্তম শ্রেণির চারু ও কারুকলা পরীক্ষা ছিল। পরীক্ষা চলছিল বিদ্যালয়ের এক পাশের কক্ষে। আর অন্য পাশের আরেকটি শ্রেণিকক্ষে ওই সভা হয়েছে।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল-মামুনের অনুরোধে সভা আয়োজনের অনুমতি দেয়া হয়েছে। বিদ্যালয়ে পরীক্ষা চলছে জেনেই তারা সভা করেছেন বলে দাবি করেন প্রধান শিক্ষক। একই সঙ্গে সভায় পরীক্ষার বিঘ্ন ঘটেনি বলেও দাবি করেন তিনি।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আমিরুল ইসলাম বলেন, বিদ্যালয়ে পরীক্ষা চলাকালীন কোনো ধরণের সভা-সমাবেশ আয়োজরে সুযোগ নেই। বিষয়টি বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ আগে থেকে জানায়নি। খোঁজখবর নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বস দেন তিনি।

সভায় অংশ নেয়া উপজেলা যুবলীগ সভাপতি লুৎফর হায়দার রশিদ ময়না বলেন, এটি আসলে নির্বাচনী সভা কিংবা বর্ধিত সভা নয়। ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আয়োজনে পারিশো দুর্গাপুরে বর্ধিত সভা ছিলো দুপুরে। সেখানে যাবার পথে বিদ্যালয়েটির একটি শ্রেণিকক্ষে স্থানীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে বৈঠক করেন এমপি। বেলা সাড়ে ১১টার পরপরই ওই বৈঠক শেষ হয়েছে। তবে বিদ্যালয়টিতে পরীক্ষা চলছিল বিষয়টি আগে থেকে আমরা জানতাম না।

জানতে চাইলে নির্বাচনের সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা চৌধুরী মো. গোলাম রাব্বী বলেন, এমন কর্মকাণ্ড নির্বাচনী আচরণবিধির লঙ্ঘন। তবে পরীক্ষা চলাকালীন বিদ্যালয়ে নির্বাচনী সভা আয়োজনের বিষয়টি তাদের জানা। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানান তিনি।

প্রসঙ্গত, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ওমর ফারুক চৌধুরীর বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময় শিক্ষক-কর্মচারীদের দলীয় কর্মসূচিতে বাধ্য করার অভিযোগ রয়েছে। সম্প্রতি দলের মনোনয়ন নিয়ে রাজশাহী ফেরার পথে শাহমখদুম বিমানবন্দরে দীর্ঘ চার ঘণ্টা শিক্ষকদের দাঁড় করিয়ে রাখেন তিনি। সেখানে নির্বাচনী এলাকা তানোর ও গোদাগাড়ী উপজেলার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীরা এমপিকে ফুলেল সংবর্ধনা দেন।সূত্র:জাগো নিউজ

এডুকেশন বাংলা/একে

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর