শনিবার ২৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ১১:৪৪ এএম


পরীক্ষায় নকল : ২২ ইবি শিক্ষার্থীর শাস্তি

অনি আতিকুর রহমান, ইবি

প্রকাশিত: ১৮:০৯, ২৬ জানুয়ারি ২০২০   আপডেট: ১৯:১০, ২৬ জানুয়ারি ২০২০

চূড়ান্ত পরীক্ষায় নকলের দায়ে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ২২ শিক্ষার্থীকে বিভিন্ন মেয়াদে শাস্তির সুপারিশ করেছে একাডেমিক কমিটি। এই শাস্তির আওতায় ১ শিক্ষার্থীকে দুই বছর, ৩ জনকে ১ বছর এবং ৬ জনকে এক সেমিস্টারের জন্য বহিষ্কার করা হয়েছে। এছাড়া ১২ জন শিক্ষার্থীর একটি করে কোর্স পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে। রোববার শৃঙ্খলা কমিটির ৫৬তম সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে পরিক্ষা নিয়ন্ত্রক অফিস সূত্রে জানা গেছে।

সূত্র মতে, বিভাগীয় চূড়ান্ত পরীক্ষায় নকলের দায়ে ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের শিহাব আহমেদ তুহিনকে দুই বছরের জন্য বহিষ্কার করা হয়েছে। এছাড়া আরবি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের আতিকুর রহমান, সাইফুল ইসলাম ও ট্রিপল-ই বিভাগের ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের আবু তালেবকে এক বছরের জন্য বহিষ্কার করা হয়েছে। একইসাথে বায়োমেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের আমিনুর রহমান রাব্বি, ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের তানজির আলম, জুলিয়াত ইসলাম, আইন বিভাগের ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের তাহসিন বিন আল হাসান বাপ্পী, ব্যবস্থাপনা বিভাগের ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের মাহবুবুল ইসলাম ও সৌরভ আল আমিনকে এক সেমিস্টারের জন্য বহিস্কার করা হয়েছে।

এছাড়া আরবি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের মাহফুজ হোসাইন ও ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের নুর মোহাম্মদ, আবুল কাশেম, ইমন হোসাইন, রাকিবুল হাসান, হাসিনা খাতুন, সুমাইয়া খাতুন, শিবলী আল সাদিক ও সাকিব হোসাইনের একটি কোর্সের পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে।

সভায় উপস্থিত ছিলেন বিশ^বিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. রাশিদ আসকারী, উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. শাহিনুর রহমান, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. সেলিম তোহা, রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) এসএম আব্দুল লতিফ, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক (ভারপ্রাপ্ত) আবুল কালাম আজাদসহ অনুষদীয় ডিনবৃন্দ।

ভারপ্রাপ্ত পরিক্ষা নিয়ন্ত্রক আবুল কালাম আজাদ বলেন, ‘শৃঙ্খলা কমিটির সভায় ২২ শিক্ষার্থীর বিভিন্ন মেয়াদে শাস্তির বিষয়টি সুপারিশ করা হয়েছে। পরবর্তী সিন্ডিকেট সভায় বিষয়টি চূড়ান্ত করা হবে।’


এডুকেশন বাংলা /এসআই

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর