শুক্রবার ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৪:২৭ পিএম


পঞ্চম শ্রেণির এক ছাত্রকে নির্মমভাবে হত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ০৭:৩৫, ৩১ আগস্ট ২০১৯   আপডেট: ০৭:৫৫, ৩১ আগস্ট ২০১৯

রংপুর মহানগরীর ১৭ নম্বর ওয়ার্ডের টেক্সটাইল মোড় এলাকায় আব্দুর রশিদ (১১) নামে পঞ্চম শ্রেণিপড়ুয়া এক ছাত্রকে কুপিয়ে আহত করে চলন্ত গাড়ির নিচে ফেলে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। গত বৃহস্পতিবার রাতে এ ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

পুলিশ ও নিহতের স্বজনদের সূত্রে জানা গেছে, আব্দুর রশিদ রংপুর মহানগরীর ১৮ নম্বর ওয়ার্ডের সাতগাড়া মিস্ত্রিপাড়া এলাকার শহিদার রহমানের পুত্র। কয়েক দিন আগে রশিদের বড় ভাই মোহনের (৩০) কাছে ৫০০ টাকা দাবি করে এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী মোজাফফর হোসেন। তিনি টাকা না দেওয়ায় তাকে মারধর করে সন্ত্রাসী মোজাফফর। এ ঘটনার বিচার দাবি করে মোজাফফরের বাবা কামালের কাছে অভিযোগ করেন রশিদের বড় ভাই মোহন। এ ঘটনায় ক্ষিপ্ত হয়ে তাদের দেখে নেওয়ার হুমকি দেয় মোজাফফর। গত বৃহস্পতিবার রাতে রশীদ টেক্সটাইল মোড়ে বাজার করে বাড়ি ফেরার পথে সন্ত্রাসী মোজাফফর ও তার সহযোগীরা রশিদকে আটক করে লাঠি দিয়ে পেটায় ও ছোরা দিয়ে কুপিয়ে আহত করে। একপর্যায়ে রংপুর-ঢাকা মহাসড়কে রশিদকে চলন্ত একটি গাড়ির নিচে ফেলে দেয় তারা। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যায় রশীদ।

নিহত রশীদের বড় ভাই মোহন অভিযোগ করেন, ‘মোজাফফর এলাকার একজন কুখ্যাত সন্ত্রাসী। সে যার তার কাছে টাকা দাবি করে, জোর করে টাকা কেড়ে নেয়। স্কুল-কলেজের মেয়েদের ওড়না ধরে টান দেয়। তার প্রতিবাদ করলেই দলবল নিয়ে হামলা চালায়। আমার কাছে কোনো টাকা পায় না। সে আমার কাছে টাকা চেয়েছে, আমি টাকা দেইনি এবং তার বাবার কাছে বিচার দিয়েছি। এ কারণে সে আমার ছোট ভাইকে এভাবে হত্যা করেছে।’ রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কোতোয়ালি থানার ওসি আব্দুর রশীদ জানান, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে তিনি প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবেন। কোতোয়ালি থানার এসআই রফিক জানান, লাশ ময়নাতদন্তের পর স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

এডুকেশন বাংলা/এজেড

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর