শনিবার ২৫ মে, ২০১৯ ১৭:৫৬ পিএম


নুসরাতের হত্যার ন্যায়বিচার নিয়ে শঙ্কিত টিআইবি

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৪:১৭, ২১ এপ্রিল ২০১৯   আপডেট: ১৬:৪১, ২১ এপ্রিল ২০১৯

ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের (টিআইবি) নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেছেন, স্বাধীনতার ৪৮ বছর পার হলেও এখনও কমছে না নারীর প্রতি সহিংসতা। একের পর এক এ ধরনের ন্যক্কারজনক ঘটনা ঘটেই চলেছে। একটি ন্যায়বিচারও জনগণ দেখতে পায়নি। তবে এবার ফেনীর নুসরাতের হত্যার ঘটনা সরকারের জন্য অ্যাসিড টেস্ট (অগ্নি পরীক্ষা)। এ ঘটনায় ন্যায়বিচার প্রক্রিয়ার মাধ্যমে একটা দৃষ্টান্ত স্থাপনের সুযোগ রয়েছে। এর মাধ্যমে সরকারের প্রতি জনগণের আস্থা ও বিশ্বাস অর্জনের সুযোগ তৈরি হবে।

নুসরাতের ঘটনায় ন্যায়বিচার নিয়ে শঙ্কিত বলেও জানান তিনি।

রোববার (২১ এপ্রিল) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রে (টিএসসি) চত্বরে টিআইবি আয়োজিত নুসরাত হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে এক মানববন্ধন তিনি এ মন্তব্য করেন।

ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, নুসরাত হত্যাকাণ্ডে শুধু প্রত্যক্ষদের বিচার করলে হবে না, তাদের বিচারের আওতায় আনতে হবে না। এ ঘটনা ঘটেছে একটি সিন্ডিকেটের মাধ্যমে যারা পরোক্ষভাবে জড়িত ছিলো। সংশ্লিষ্ট মাদ্রাসার কমিটি, শিক্ষক এবং স্থানীয় রাজনৈতিক নেতারা জড়িত আছেন। তাদেরকেও বিচারের আওতায় আনতে হবে।

টিআইবির নির্বাহী পরিচালক বলেন, এ ঘটনায় আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর দায়িত্ব অবহেলা ছিলো তাদের বিচারের আওতায় আনতে হবে। আমরা দেখি যখন কোনো অন্যায় হচ্ছে ঠিক তখনই পুলিশ অন্যায়কারীদের পক্ষ নেয়।

তারা অন্যায়ের পক্ষে জড়িয়ে পড়ে। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী এসব ঘটনার সঙ্গে জড়িয়ে পড়ার কোনো ন্যায়বিচার আসেনি। আমরা নুসরাতের ঘটনায় ন্যায়বিচার নিয়ে শঙ্কিত। তবুও আমাদের প্রতিবাদ অব্যাহত থাকবে।

ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, নুসরাত হত্যার ন্যায়বিচার ও সব পর্যায়ের বিচারহীনতার অবসান ঘটানোর পাশাপাশি গণতন্ত্র, সুশাসন ও মানবাধিকার প্রতিষ্ঠা কথা বলেন।

পাশাপাশি সমাজ ও রাষ্ট্রের বিভিন্ন ক্ষেত্রে দুর্নীতি প্রতিরোধে দুদকসহ জাতীয় শুদ্ধাচার প্রতিষ্ঠানের কার্যকর, স্বাধীন ও নিরপেক্ষ ভূমিকা পালনের দাবি জানান তিনি।

টিআইবির সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক), ইয়েজ গ্রুপসহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বেচ্ছাসেবকসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন।

এডুকেশন বাংলা/একে

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর