মঙ্গলবার ২১ আগস্ট, ২০১৮ ৪:৪৭ এএম

Sonargaon University Dhaka Bangladesh
University of Global Village (UGV)

নারীদের জন্য ২৪টি নতুন কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র করছে সরকার

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ০৮:৪৬, ৪ জুলাই ২০১৮  

নারীকর্মীদের বিশেষ বিষয়ে প্রশিক্ষণ দিয়ে দক্ষ করে বিদেশে পাঠাতে আরও ২৪টি নতুন কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র করছে সরকার। সারাদেশে এসব প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের জন্য ১৭৪১টি পদের অনুমোদন দিয়েছে প্রশাসনিক উন্নয়ন সংক্রান্ত সচিব কমিটি। গতকাল সচিবালয়ে এ সংক্রান্ত সভায় কমিটি এই অনুমোদন দেয়।

বিদেশে দক্ষ কর্মী পাঠানোর জন্য নানামুখী নতুন নতুন উদ্যোগ নিচ্ছে সরকার। বর্তমানে প্রশিক্ষণের জন্য সরকারের ৬৪টি কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র এবং ৬টি ইনস্টিটিউট অব মেরিন টেকনোলজি পরিচালিত হচ্ছে। এসব কেন্দ্র থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে নারী ও পুরুষকর্মীরা বিদেশে যাচ্ছে।

প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, নতুন ২৪টি নারী প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে নারীকর্মীদের নতুন নতুন বিষয়ে প্রশিক্ষণ প্রদানের মাধ্যমে বিদেশ কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা হবে। বাংলাদেশের অধিকাংশ নারীকর্মী বর্তমানের গৃহপরিচারিকার কাজ করছে। সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যে নারীদের সঙ্গে অমানবিক আচরণে সরকার নারীদের প্রশিক্ষণের বিষয়ে বিশেষভাবে জোর দিচ্ছে। নারীরা বিভিন্ন ধরনের কাজের বিষয়ে প্রশিক্ষণ নিয়ে, দক্ষ হয়ে বিদেশে গেলে তাদের জন্য সুবিধা হয়। এতে করে নারীদের কর্মক্ষেত্র নিরাপদও হবে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, জনশক্তি, কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর ২৪টি নারী কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের মধ্যে ঢাকাসহ কুষ্টিয়া, নোয়াখালী, বান্দরবান, সিলেট, দিনাজপুর, টাঙ্গাইল, যশোর, পাবনা, পটুয়াখালী, জামালপুর ও রংপুরে ১২টি প্রশিক্ষণ কেদ্র হবে। এসব কেন্দ্রের মোট জনবল থাকবে ৮০৪ জন। এছাড়া ঠাকুরগাঁও, লালমনিরহাট, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, খাগড়াছড়ি, লক্ষ্মীপুর, নরসিংদী ও নাটোর- এই ৭টি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের জনবল থাকবে ৫৬৭ জন। একইসঙ্গে রাজশাহী, খুলনা, সিলেট, চট্টগ্রাম, ও বরিশাল প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের জন্য ৩৭০ জন জনবলের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। প্রত্যেকটি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে চতুর্থ গ্রেডের একজন অধ্যক্ষের মাধ্যমে পরিচালিত হবে। এছাড়া একজন করে উপাধ্যক্ষ এবং ছয়জন করে চিফ ইন্সট্রাক্টরসহ প্রয়োজনীয় জনবল থাকবে প্রত্যেকটি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে।

প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা আজকালের খবরকে জানান, বিশ্বায়নের এই যুগে কর্মসংস্থানের অপরাপর প্রতিযোগী দেশসমূহের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করে টিকে থাকা, নিরাপদ অভিবাসন ও শোভন কাজ নিশ্চিত করতে প্রশিক্ষণ কেন্দ্রগুলোতে নানামুখী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। বিদেশে যেতে ইচ্ছুক কর্মীদের জন্য গন্তব্য দেশের খাদ্যাভ্যাস, আবহাওয়া, কর্মপরিবেশ, বিধিবিধান ও ব্যবহারিক ভাষাজ্ঞান সম্পর্কে তিন দিনের প্রি-ডিপারচার (বিদেশ গমনের আগে) প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে। এছাড়া নারীকর্মীদের ক্ষেত্রে ৩০ দিনের বাধ্যতামূলক প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়েছে। তবে এতদিন প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের অপ্রতুলতার কারণে নানা জটিলতা ছিল। ২৪টি নতুন প্রশিক্ষণ কেন্দ্র হলে আর এসব সমস্যা থাকবে না। প্রায় প্রত্যেকটি জেলার নারীরা তাদের নিজ জেলাতেই প্রশিক্ষণ নিয়ে বিদেশে যেতে পারবেন।

সরকারি হিসাবে বর্তমানে বিশ্বের ১৬৫টি দেশে প্রায় এক কোটি ১৭ লাখ বাংলাদেশি কর্মরত আছেন। বেসরকারি হিসেবে এই সংখ্যা দেড় কোটির মতো। ২০১৭ সালে রেকর্ড সংখ্যক ১০ লাখ ৮ হাজার ৫২৫ জন বাংলাদেশির বিদেশে কর্মসংস্থান হয়েছে। গত অর্থবছরে ১৩ হাজার ৫২৬ মিলিয়ন মার্কিন ডলার রেমিট্যান্স অর্জিত হয়েছে।

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর