মঙ্গলবার ২০ আগস্ট, ২০১৯ ০:১১ এএম


দুই স্কুলছাত্রকে বেঁধে নির্যাতন : বাবা-ছেলে আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১১:০৩, ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯  

মোবাইল চুরির অপবাদ দিয়ে রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার নারুয়া বাজারে রশি দিয়ে বেঁধে দুই স্কুলছাত্রকে পেটানোর অভিযোগে দুইজনকে আটক করা হয়েছে। শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে তাদের আটক করা হয়।

আটকরা হলেন- সাবেক সেনা সদস্য জুলফিকার আলী শেখ ও তার ছেলে সুমন শেখ। তারা নারুয়া ইউনিয়নের নারুয়া গ্রামের বাসিন্দা।

জানা গেছে, গতকাল শুক্রবার বিকেলে উপজেলার নারুয়া বাজারে মোবাইল চুরির অপবাদ দিয়ে ইউনিয়নের বিলধামু গ্রামের ফরিদ মোল্লার ছেলে ৫ম শ্রেণির ছাত্র বিজয় মোল্লা (১১) ও একই গ্রামের সাদেক আলীর ছেলে ২য় শ্রেণির ছাত্র আশিককে(৭) রশি দিয়ে বেঁধে প্রকাশ্যে পিটিয়ে আহত করেন সাবেক সেনা সদস্য জুলফিকার আলী শেখ ।

আহত বিজয় মোল্লার বাবা ফরিদ মোল্লা জানান, তিনি কাজ থেকে বাড়িতে এসে শুনেছেন মোবাইল চুরির অপবাদ দিয়ে তার ছেলে বিজয় ও আরেকটি ছেলেকে বেঁধে নারুয়া বাজারে মারধর করেছেন জুলফিকার আলী শেখ ও তার ছেলে সুমন শেখ। তাদের শরীরে আঘাতে চিহ্ন রয়েছে। স্থানীয় চিকিৎসক দ্বারা চিকিৎসা করিয়েছেন তার ছেলেকে। তবে মোবাইল চুরির অভিযোগ মিথ্যা। নির্যাতনকারীদের বিরুদ্ধে তিনি থানায় মামলা করেছেন।

তবে সাকেব সেনা সদস্য জুলিফিকার আলী শেখ জানান, তার মোবাইল চুরি হয়েছে সেই সন্দেহে দুই শিশুকে আটক করেন এবং ভয়ভীতি দেখান। তবে তাদের মারধর করেননি। ওই সময় মোবাইল চুরির কথা তারা স্বীকার করেছে এবং মোবাইল ফোনটিও দিয়েছে কিন্তু সিমকার্ড দেয়নি।

বালিয়াকান্দি থানা পুলিশের এসআই বিল্লাল হোসেন জানান, নারুয়া বাজারে দুই ছাত্রকে নির্যাতন করার অভিযোগে সাবেক সেনা সদস্য জুলফিকার আলী শেখ ও তার ছেলে সুমন শেখকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে।


এডুকেশন বাংলা /এজেড

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর