সোমবার ১৯ আগস্ট, ২০১৯ ১১:৩৪ এএম


তাহলে কেন প্রাথমিক শিক্ষা ও প্রাথমিক শিক্ষকরা এত অবহেলিত?

মাহফিজুর রহমান মামুন

প্রকাশিত: ০৭:৩৭, ২ আগস্ট ২০১৯  

শিক্ষার ভিত্তি স্থাপনকারী হিসেবে প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন ও পদমর্যাদা হওয়া উচিত অন্য পেশাজীবীদের থেকে বেশি। কিন্তু বেতন-পদমর্যাদা তাঁদের সমযোগ্যতার অন্যদের থেকেও অনেক কম। প্রাথমিকের একজন সহকারী শিক্ষকের নিয়োগ যোগ্যতা স্নাতক। নিয়োগ পাওয়ার পরে প্রত্যেক শিক্ষককে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইইআর ডিপার্টমেন্টের অধীনে বাধ্যতামূলকভাবে দেড় বছর মেয়াদি ডিপে­ামা ইন প্রাইমারি এডুকেশন কোর্স সম্পন্ন করতে হয়।

স্নাতক ও একইসঙ্গে ডিপে­ামাধারী হয়েও একজন প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক বেতন পান ১৪তম গ্রেডে। অথচ এসএসসি অথবা এইচএসসির পরে ডিপে­ামা সম্পন্ন করে অন্য সকল ডিপে­ামাধারী বেতন পাচ্ছেন ১০ম গ্রেডে। এটা কি বৈষম্য নয়? প্রাথমিকের সহকারী শিক্ষকরা দীর্ঘদিন ধরে ১১তম গ্রেডের জন্য আন্দোলন করে এলেও এটা নিয়ে একের পর এক তালবাহানা ও সময়ক্ষেপণ চলছে।

বিসিএস নন-ক্যাডার থেকে আগত অন্য পেশাজীবীরা সরাসরি ১০ম গ্রেডে নিয়োগ পেলেও প্রাথমিকে যোগদান করা প্রধানশিক্ষকরা পাচ্ছেন ১১তম গ্রেডে। প্রাথমিক শিক্ষা যদি সত্যিকারের শিক্ষার ভিত্তি হয় ও শিক্ষকরা যদি মানুষ গড়ার আসল কারিগর হন, তাহলে কেন প্রাথমিক শিক্ষা ও প্রাথমিক শিক্ষকরা এত অবহেলিত? এ ব্যাপারে ঊর্ধ্বতন মহলের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।


বোদা, পঞ্চগড়

এডুকেশন বাংলা/এজেড

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর