রবিবার ২০ অক্টোবর, ২০১৯ ২:৩৯ এএম


ঢাবি ভর্তি পরীক্ষায় এবছর এমসিকিউয়ের সঙ্গে থাকছে লিখিত পরীক্ষাও

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৩:০১, ১৯ জুন ২০১৯  

চলতি বছর থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় এমসিকিউয়ের সঙ্গে এবার লিখিত পরীক্ষাও নেওয়া হবে বলে জানিয়েছে ঢাবি কর্তৃপক্ষ। গত ২৮ মার্চ বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। অবশ্য এর ধরণ কেমন হবে সে বিষয়ে এখনো বিস্তারিত কিছু জানা যায়নি।

তবে আগামী ১ জুলাই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় দিবসের অনুষ্ঠানের পর এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে বলে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার মো. এনামুজ্জামান বলেন, ‘এমসিকিউ ও লিখিত আকারে ভর্তি পরীক্ষা নেওয়ার ব্যাপারে সিন্ডিকেটসহ সব ফোরামে সিদ্ধান্ত হয়েছে। সাধারণ ভর্তি কমিটির মিটিংয়ে এ ব্যাপারে বিস্তারিত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’

কবে নাগাদ এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত হতে পারে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘সভার ব্যাপারে উপাচার্য স্যার এখনো কোনো সময় দেননি। তবে আগামী ২৬ থেকে ২৭ তারিখ সিনেট অধিবেশন রয়েছে। এছাড়া ১ জুলাই বিশ্ববিদ্যালয় দিবস। এরপর হয়ত এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে।’

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, গত ২৮ মার্চ উপাচার্য অধ্যাপক ড. আখতারুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সভায় ভর্তি পরীক্ষায় নতুন নিয়মের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সে অনুযায়ী ভর্তি পরীক্ষায় প্রচলিত এমসিকিউ প্রশ্নের পাশাপাশি লিখিত পরীক্ষাও নেওয়া হবে।

সে সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সদস্য এবং ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের শিক্ষক মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসকে বলেছিলেন, ‘ভর্তি পরীক্ষায় এমসিকিউ এর পাশাপাশি লিখিত পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে সিন্ডিকেটে। এরমধ্যে ৬০ নম্বরের এমসিকিউ এবং ৪০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা নেওয়া হবে।’

তিনি বলেন, ‘আগামী ভর্তি পরীক্ষা থেকেই এ সিদ্ধান্ত কার্যকর করা হবে। সিন্ডিকেটে সিদ্ধান্ত পাশ হয়েছে। এখন একাডেমিক কাউন্সিল ও জেনারেল অ্যাডমিশন কমিটি এ ব্যাপারে বিস্তারিত সিদ্ধান্ত নেবে।’


ক-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা গত বছরের ২৮ সেপ্টেম্বর শুক্রবার, খ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ২১ সেপ্টেম্বর শুক্রবার, গ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ১৪ সেপ্টেম্বর শুক্রবার, ঘ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ১২ অক্টোবর শুক্রবার, চ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা (সাধারণ জ্ঞান) ১৫ সেপ্টেম্বর শনিবার এবং চ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা (অঙ্কন) ২২ সেপ্টেম্বর শনিবার অনুষ্ঠিত হয়।

সে হিসেবে চলতি ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষেও কাছাকাছি সময়ের মধ্যে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হতে পারে। সে হিসেবে ভর্তি পরীক্ষার প্রস্তুতির জন্য সর্বোচ্চ তিন মাস সময় পাচ্ছেন ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীরা।

এডুকেশন বাংলা/এজেড

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর