মঙ্গলবার ১৫ অক্টোবর, ২০১৯ ৭:৩২ এএম


ডাকসু-সিনেটে থাকারও যোগ্যতা নেই শোভন-রাব্বানীর: ভিপি নুর

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৫:১৫, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

আর্থিক কেলেঙ্কারিসহ নানান বিতর্কিত কর্মকাণ্ডের অভিযোগে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীকে পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

তাদের পরিবর্তে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হিসেবে সংগঠনের জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় এবং ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন জ্যেষ্ঠ যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য।

এর মধ্যে রাব্বানী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সাধারণ সম্পাদক (জিএস) এবং শোভন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেটের সদস্য। বির্তকিত এ দুইজন দেশের সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠের এমন দুটি গুরুত্বপূর্ণ পদে আসীন থাকাকে ভালো চোখে দেখছেন না ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের ভিপি নুরুল হক নুর।

দেশের একটি অনলাইন পত্রিকায় দেয়া সাক্ষাৎকারে ভিপি নুরুল হক নুর বলেন, এমন বিতর্কিত ব্যক্তি যদি ডাকসু এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেটে আসীন থাকেন, তাহলে খোদ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কে সবার নেতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি তৈরি হতে পারে। যেহেতু তারা নানা নেতিবাচক কর্মকাণ্ডে জড়িত, সেহেতু তাদের উচিত বিশ্ববিদ্যালয়ের গুরুত্বপূর্ণ পদ থেকে পদত্যাগ করা।

ভিপি নুর আরও বলেন, তাদের বিরুদ্ধে নৈতিক স্খলনের অভিযোগ এসেছে, এক্ষেত্রে তারা গুরুত্বপূর্ণ পদে থাকতে পারে না বা থাকার যোগ্যতা রাখে না। ৪৩ হাজার শিক্ষার্থীর প্রতিনিধি, সারা বাংলাদেশের শিক্ষার্থীদের রোল মডেল যাকে ধরা হয় সে প্রতিনিধিরা যদি অনৈতিক বা দুর্নীতির সাথে জড়িত থাকে সেক্ষেত্রে ডাকসু বা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতি দেশবাসীর নেগেটিভ মাইন্ড তৈরি হবে। প্রধানমন্ত্রী হয়তো তাদের বিরুদ্ধে নানান প্রমাণ পেয়েছেন, যে কারণে তিনি তাদের এ পদে রাখেননি। মানুষ ভুল করে। তাদের উপলব্ধি থেকেই উচিত বিশ্ববিদ্যালয়ের এ গুরুত্বপূর্ণ পদ থেকে পদত্যাগ করা।

এডুকেশন বাংলা/এজেড

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর