শনিবার ০৪ এপ্রিল, ২০২০ ১৩:৩৯ পিএম


ডাকসু বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি অলিম্পিয়াড-২০২০ অনুষ্ঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৩:৫৬, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

মুজিববর্ষকে সামনে রেখে অনুষ্ঠিত হয়ে গেলো ডাকসু বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি অলিম্পিয়াড-২০২০। বৃহস্পতিবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এএফ মুজিবুর রহমান গণিত ভবনে পর্দা উঠে এ অলিম্পিয়াডের।

অলিম্পিয়াডে ৭ টি পৃথক বিষয়ের উপর জুনিয়র ও সিনিয়র দুই গ্রুপে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। অলিম্পিয়াডে অংশ নিতে অনলাইন এবং অফলাইনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের দেড় হাজারের বেশি শিক্ষার্থী অংশ নেয়। সকাল ১০ টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মানিত উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. মুহাম্মদ সামাদ অলিম্পিয়াডের শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তথ্য মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ড. মো. মুরাদ হাসান এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সেন্টার ফর রিসার্চ এন্ড ইনফর্মেশনের (সিআরআই) কো-অর্ডিনেটর তন্ময় আহমেদ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পর দিনব্যাপী পর্যায়ক্রমে ৭টি বিষয়ের ওপর অলিম্পিয়াড অনুষ্ঠিত হয়। উদ্বোধনী বক্তৃতায় উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ অলিম্পিয়াড আয়োজনের প্রয়োজনীয়তা এবং একাডেমিক পড়াশোনার পাশাপাশি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক জ্ঞানের অপরিহার্যতা নিয়ে কথা বলেন।

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মাননীয় প্রতিমন্ত্রী ড. মুরাদ হাসান বলেন, `ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমনস্ক তরুণ সমাজ গড়ে তুলতে হবে। ডাকসু আয়োজিত এই বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি অলিম্পিয়াড শিক্ষার্থীদের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির প্রতি আগ্রহী করে তুলবে বলে আমার বিশ্বাস।`

বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় সিআরআই এর কো-অর্ডিনেটর তন্ময় আহমেদ বলেন, `বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক জ্ঞান অনুশীলনের সংস্কৃতি তৈরি করতে হবে। এজন্য বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি অলিম্পিয়াড গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। বাংলাদেশে তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক একটি ইকোসিস্টেম গড়ে তুলতে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক অলিম্পিয়াডসহ অন্যান্য কর্মসূচি হাতে নিতে হবে।`

আগামী রবিবার (১ মার্চ) বিকাল ৩টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি অডিটরিয়ামে ডাকসু বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি অলিম্পিয়াডের পুরষ্কার বিতরণী ও সমাপনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে। অনুষ্ঠানে বিদ্যুৎ, জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদসহ অন্যান্য অতিথিরা উপস্থিত থাকবেন।

ডাকসুর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক মো. আরিফ ইবনে আলী বলেন, `ডাকসু সবসময়ই শিক্ষার্থীদের নিয়ে ভাবে এবং কাজ করে। ডাকসুর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক হিসেবে আমি চাই এই বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল শিক্ষার্থী তাদের একডেমিক পড়াশোনার পাশাপাশি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সংক্রান্ত জ্ঞান অন্বেষণ করবে। একাডেমিক পড়াশোনার পাশাপাশি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমনস্ক হিসেবে নিজেদের তৈরি করতে পারলে কর্মক্ষেত্রে তারা নিজেদের যোগ্য হিসেবে প্রমাণ করতে পারবে। এ লক্ষ্যেই আমরা এই অলিম্পিয়াডের আয়োজন করেছি।`

এডুকেশন বাংলা/এজেড

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর