রবিবার ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ৬:০৫ এএম


ট্রেন দুর্ঘটনায়ই শেষ দুই বান্ধবীর নার্স হওয়ার স্বপ্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১০:৩০, ২৫ জুন ২০১৯  

ফাহমিদা ও সানজিদা দুইজন ঘনিষ্ঠ বান্ধবী। দুইজনের বাড়ির দূরত্ব প্রায় ৫০০ কিলোমিটার দূরে হলেও সিলেট নার্সিং কলেজে পড়ার সুবাদে মনের টানে সেই দূরত্ব ছিল না। কলেজে সবসময় একসঙ্গে থাকতেন তারা। লেখাপড়া খাওয়া-দাওয়া সবকিছু ছিল একসঙ্গে। নার্সিংয়ের উচ্চতর একটি প্রশিক্ষণ নিতে রবিবার রাত ১০টায় আন্তঃনগর উপবন এক্সপ্রেস ট্রেনে ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেন দুইজন। বসেছিলেন পাশাপাশি সিটে। স্বপ্ন ছিল অনেক। পড়ালেখা শেষে পরিবারে সচ্ছলতা ফেরানোর স্বপ্ন ছিল তাদের। রবিবার রাতে মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার বরমচালে ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনায় তাদের সেই স্বপ্ন নিমিষেই শেষ হয়ে যায়। একসঙ্গে দুই বান্ধবীর মৃত্যুতে সমাপ্তি হলো এক আবেগময় বন্ধুত্বের, একই সঙ্গে স্বপ্নের।

নার্স হয়ে নয়, অবশেষে লাশ হয়ে তাদের ফিরতে হলো স্বজনদের কাছে। ফাহমিদা ইয়াসমিন ইভা সিলেটের দক্ষিণ সুরমা উপজেলার জালালপুরের আব্দুল্লাহপুর গ্রামের আব্দুল বারীর মেয়ে ও সানজিদা আক্তার বাগেরহাট জেলার মোল্লারহাট থানার আতজুরি ভানদর খোলা গ্রামের আকরাম মোল্লার মেয়ে। তারা দুইজন সিলেট নার্সিং কলেজের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। তাদের মৃত্যুর সংবাদে শোকের ছায়া নেমে এসেছে সিলেট নার্সিং কলেজ ও ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। স্তব্ধ হয়ে পড়েছেন শিক্ষকসহ তাদের সহপাঠীরা।

ইভার লাশ গতকাল যখন তার পরিবারের সদস্যরা বাড়িতে নিয়ে যান তখন স্বজনের আহাজারিতে ভারী হয়ে ওঠে পরিবেশ। পরিবারের অনেকেই জ্ঞান হারিয়েছেন। নিহত ইভার ভাই আব্দুল হামিদ বলেন, কুলাউড়া হাসপাতালে বোনের লাশ শনাক্ত করি। বিশ্বাস করতে পারছি না, আমার বোনটি আর দুনিয়াতে নেই। এদিকে সানজিদার লাশ গ্রহণ করতে নার্স নেতৃবৃন্দ যখন কুলাউড়া হাসপাতালে যান তখন হাসপাতালেই এক হূদয়বিদারক দৃশ্যের সৃষ্টি হয়। সেখান থেকে বিকেল ৩টায় এ্যাম্বুলেন্সে লাশ ওসমানীতে নিয়ে আসা হয়। তখন তাদের সহপাঠীর লাশের সামনে কান্নার ভেঙে পড়েন। ওসমানী হাসপাতালেই তার লাশকে গোসল দেয়া হয়।

বাংলাদেশ নার্সেস অ্যাসোসিয়েশন-বিএনএ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সভাপতি মো. কামাল হোসেন পাটোয়ারী রেল দুর্ঘটনায় নিহত নার্সিং কলেজ, সিলেটের তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী সানজিদা আক্তার ও ফাহমিদা ইয়াসমিন ইভার অকাল মৃত্যুতে শোক জানান।

এডুকেশন বাংলা/এজেড

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর