শুক্রবার ২৪ মে, ২০১৯ ৫:২০ এএম


বলাৎকারের অভিযোগে মাদ্রাসা শিক্ষক গ্রেফতার

প্রকাশিত: ০৯:৩১, ১৯ এপ্রিল ২০১৯   আপডেট: ০৯:৩২, ১৯ এপ্রিল ২০১৯

পঞ্চগড়ে তেঁতুলিয়ায় ছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগে মো. নুরুজ্জামান (২৫) নামে এক মাদ্রাসার শিক্ষককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার বিকেলে ওই ছাত্রের বাবার দায়ের করা মামলায় পুলিশ তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠায়।

অভিযুক্ত নুরুজ্জামান সদর উপজেলার সাতমেড়া ইউনিয়নের শিতলীহাসনা এলাকার জমশেদ আলীর ছেলে। তিনি তেঁতুলিয়া উপজেলার বুড়াবুড়ি ইউনিয়নের হারাদিঘী রহিমুন নেছা হাফেজিয়া নূরানী মাদ্রাসায় শিক্ষকতা করতেন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, ওই মাদ্রাসায় ১০/১২ জন ছেলে আবাসিক ছাত্র হিসেবে হেফজ শাখায় পড়তো। সেখানে শিক্ষদের জন্য আবাসিক একটি কক্ষ রয়েছে। বুধবার সকালে শিক্ষক নুরুজ্জামান ১২ বছর বয়সী এক ছাত্রকে তার কক্ষে ডেকে যৌন নির্যাতন চালান। পরে ওই ছাত্র বিষয়টি তার সহপাঠিসহ অভিভাকদের জানায়।

এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার দুপুরে মাদ্রাসার সকল অভিভাবক ও কমিটির লোকজন অভিযুক্ত শিক্ষককে আটকে রাখে। খবর পেয়ে তেঁতুলিয়া থানা পুলিশ তাকে আটক করে। পরে নির্যাতিত ওই ছাত্রের বাবা বাদি হয়ে তেঁতুলিয়া থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন।

তেঁতুলিয়া থানার ওসি মো. জহুরুল ইসলাম বলেন, মামলা দায়েরের পর অভিযুক্ত শিক্ষককে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। নির্যাতিত ছাত্রের ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এডুকেশন বাংলা/এজেড

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর