সোমবার ২১ অক্টোবর, ২০১৯ ৪:২৮ এএম


চাকরির প্রলোভনে ধর্ষণ, স্বাস্থ্য পরীক্ষায় মিলেছে আলামত

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৬:২২, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

রাজধানীর ধানমন্ডিতে চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে গণধর্ষণের শিকার ওই নারীর ফরেনসিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে।

সোমবার (৩০ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) সমন্বয়কারী চিকিৎসক বিলকিস বেগম জানান, ওই নারীর ফরেনসিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে।

পুলিশ ডিএনএ টেস্টের জন্য পরনের কাপড় দিয়েছে। সেগুলোর ডিএনএ পরীক্ষাও করা হবে। প্রতিবেদন গুলো পেলে পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন দেওয়া হবে।

তবে ফরেনসিক পরীক্ষা-নিরীক্ষায় প্রাথমিকভাবে ধর্ষণের আলামত পাওয়া গেছে বলেও জানান ঢামেক হাসপাতালের সমন্বয়কারী চিকিৎসক বিলকিস।

এর আগে, চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে ওই নারীকে (২৭) ধর্ষণের অভিযোগে রিয়েল এস্টেট অ্যান্ড হাউজিং অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (রিহ্যাব) দুই পরিচালককে আটক করেছে পুলিশ।

আটক দু’জন হলেন- শাকিল কামাল চৌধুরী ও ইঞ্জিনিয়ার মহিউদ্দিন সিকদার।

রোববার (২৯ সেপ্টেম্বর) রাতে ভুক্তভোগী ওই নারীর অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে তাদের আটক করে ধানমন্ডি থানা পুলিশ।

ধানমন্ডি থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মরফিদুল জানান, রোববার চাকরির জন্য ধানমন্ডি ১৩ নম্বর রোডের একটি বাড়িতে ওই নারীকে ডেকে নেওয়া হয়। সেখানে যাওয়ার পর গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন বলে থানায় অভিযোগ করেন ওই নারী। এ অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে রিহ্যাবের ওই পরিচালকদের আটক করা হয়েছে।

পরে ভুক্তভোগী নারীকে পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য ঢামেক হাসপাতালে পাঠানো হয়। এ বিষয়টি তদন্তে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ চলমান রয়েছে বলেও জানান তিনি।

এডুকেশন বাংলা/একে

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর