মঙ্গলবার ২৫ জুন, ২০১৯ ১৪:২৭ পিএম


চাকরিপ্রার্থীদের জন্য সেরাদের পরামর্শ

প্রকাশিত: ১১:৫৭, ৫ জুন ২০১৯   আপডেট: ১২:০২, ৫ জুন ২০১৯

ইফতেখায়রুল ইসলাম,  অতিরিক্ত উপপুলিশ কমিশনার (প্রশাসন) ওয়ারী বিভাগ, ডিএমপি।

ইফতেখায়রুল ইসলাম, অতিরিক্ত উপপুলিশ কমিশনার (প্রশাসন) ওয়ারী বিভাগ, ডিএমপি।

বর্তমানে বাংলাদেশের চাকরির বাজার অত্যন্ত প্রতিযোগিতপূর্ণ। এজন্য অনেক শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম বর্ষ থেকেই চাকরির গাইড বই পড়া শুরু করে। আবার অনেকে দ্বিধাদ্বন্দে থাকে কখন থেকে চাকরির পড়া শুরু করব। এ নিয়ে বিশেষজ্ঞের পরামর্শ জানাচ্ছেন - এম এম মুজাহিদ উদ্দীন

 

আমরা অনেকটা সময় ভুলের ঘোরে ঘুরতে থাকি। উপলব্ধি আসে অনেক পরে! অনেক সময় বেশ দেরি হয়ে যায়, পিছিয়ে যেতে হয় সেই ভুলের মাশুল দিতে দিতে। ইদানিং অনেকেই সম্মান প্রথম বর্ষে ভর্তি হয়েই বিসিএস এর প্রস্তুতি নিচ্ছে। এটি আমাকে একইসাথে বিস্মিত ও ব্যথিত করেছে। সময়ের কাজ সময়ে করাটা খুব গুরুত্বপূর্ণ। প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষায় পরিপূর্ণ দখল না এনে পেশাগত জায়গা নিয়ে অতি চিন্তিত হয়ে যাওয়াটা কখনোই শুভ লক্ষণ নয়। বাস্তবতা বুঝেই নিজের টার্গেট ঠিক করতে হবে।

বিসিএস পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে লাখ লাখ পরিক্ষার্থীর মধ্যে যেখানে হাজার দুয়েক বা তিনেক চাকরি করার সুযোগ পায়, সেখানে এটিকে একমাত্র অপশন হিসেবে মাথায় রাখাটা চরম ভুল একটি সিদ্ধান্ত! মাথায় এটি রাখতে হবে প্রতিটি ক্ষেত্র থেকেই নিজের ও অন্যের জন্য ভুমিকা রাখার সুযোগ রয়েছে। শুধু সদিচ্ছাটুকুই যথেষ্ঠ!  অনার্সে পড়ুয়া শিক্ষার্থীদের প্রথম বর্ষ থেকে যদি কিছু করার ইচ্ছেই হয় সেক্ষেত্রে দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য বিতর্কে অংশগ্রহণ, নিয়মিত পত্রিকা পাঠ ও বিভিন্ন বই পড়ার অভ্যাস গড়ে তুললে তা ফলপ্রস‚ হবে। বিসিএস ক্যাডার হতে চাওয়াটা ভুল নয়, তবে এটিকে একমাত্র অপশন হিসেবে বেছে নিয়ে,অসময়ে শুরু করাটা যথার্থ নয়!

ইফতেখায়রুল ইসলাম

অতিরিক্ত উপপুলিশ কমিশনার (প্রশাসন) ওয়ারী বিভাগ, ডিএমপি।

 

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর