মঙ্গলবার ০২ জুন, ২০২০ ১৭:০০ পিএম


চাকরিতে প্রবেশের বয়স ৩৫ দাবিতে অনশন ১১ দিনে গড়িয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৬:৪৪, ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯   আপডেট: ১৮:৫৯, ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯

সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বসয়সীমা ৩৫ বছর করার দাবিতে জাতীয় প্রেসক্লাবে আমরণ অনশনকারীদের ১১তম দিন গড়িয়েছে। বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র পরিষদের ব্যানারে অনশনে বসেছেন তারা।

মঙ্গলবার (৩১ডিসেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনের অনশন থেকে অনশনকারীরা ৩৫ দাবিতে তাদের ১১তম দিনের আমরণ অনশন চলছে বলে এডুকেশন বাংলাকে জানান।

এসময় অনশনে অংশ নেয়া নাহিদা আক্তার এডুকেশন বাংলাকে বলেন, ২১ তারিখ থেকে আমরা অনশন করছি । গত পরশু আমি অসুস্থ হয়ে গেলে ঢাকা মেডিকেলে ভর্তি হয়েছিলাম। তখন আমার অবস্থা এতোটা খারাপ হয়ে গিয়েছিল,তখন ডাক্তার আমাকে দুইটা স্যালাইন নেয়ার পরামর্শ দেন। যে স্যালাইন দুই ঘণ্টা চলার কথা। সেটা আমার শরীরে মাত্র ২০ মিনিটে শেষ হয়ে যায়। আর কিছুক্ষণ থাকলে হয়তো আমি মারা যেতাম। ঢাকার বাহিরে থেকে এসে আমি আমরণ অনশনে যোগ দিয়েছি। ৩৫ শুধু আমার একার দাবি না, এটা সবার দাবি।

তিনি বলেন, আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে বলতে চাই, আমরা না খেয়ে রাস্তায় বসে আছি। আপনি কি আমাদের প্রতি একটুও দয়া দেখাতে পারেন না ? ৩০ এর উপরে গেলে মানুষ কি তার কর্মক্ষমতা হারিয়ে ফেলে ? আমরা চাকরি চাই না, শুধু চাকরিতে আবেদনের সুযোগ চাই।

আবেদ হাসান এডুকেশন বাংলাকে বলেন, আমাদের ৩৫ দাবিটি যদি অযৌক্তিক হতো , তাহলে এ আন্দোলন আজ এ পর্যন্ত আসতো না। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আপনি আমাদের নিজ সন্তানের ভূমিকায় একবার ভেবে দেখেন।

৩৫ প্রত্যাশীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, যারা ৩৫ চান আপনারা আমাদের সাথে এসে দলে দলে যোগ দিন। তাহলে অতিশীঘ্রই আমাদের দাবিটি বাস্তবায়ন হয়ে যাবে। কেননা, জনসমর্থনের কারণে আমাদের যৌক্তিক দাবিট ঝুলে আছে।

লায়লা জাহান এডুকেশন বাংলাকে বলেন, ৩৫ বয়সসীমা দাবিতে গত ২১ তারিখ থেকে আমরণ অনশনে আছি। আর এ দাবি বাস্তবায়ন না হওয়া পর্যন্ত আমাদের অনশন চলবে।

এরআগে গত বৃহস্পতিবার (১৯ ডিসেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন শেষে অনশন পালন করার ঘোষণা দেন আন্দোলনকারীরা।

আন্দোলনকারীরা জানান, সাধারণ শিক্ষার্থীরা শিক্ষার্থীরা দীর্ঘ আট বছর যাবত এই দাবি সরকারের কাছে পেশ করলেও সরকার কেন এখনো আমাদের এই দাবিটি কেন মানছে না তা আমাদের বোধগম্য নয় । আমাদের শিক্ষা জীবনে অনার্স মাস্টার্স মিলিয়ে প্রায় ৩৫ বছর দেশের বর্তমান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত ৭ কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত সাত কলেজের মাস্টার্স ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে। চাকরিতে বয়স ৩৫ না থাকার কারণে বর্তমান ছাত্রছাত্রীরা একাডেমিক পড়াশোনার মনোযোগী না হয়ে শুধুমাত্র চাকরি নামক প্রতিযোগিতার জন্য পড়াশোনা করছে। যার ফলে মানসম্মত উচ্চ শিক্ষা ও জ্ঞান অর্জন হচ্ছে না।

এডুকেশন বাংলা/ এমআর

 

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর