বৃহস্পতিবার ২১ নভেম্বর, ২০১৯ ৬:১৯ এএম


গ্যাস ট্যাবলেট খেয়ে কলেজছাত্রীর আত্মহত্যা

বগুড়া প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৫:৪০, ৪ নভেম্বর ২০১৯  

বগুড়ার শাজাহানপুরে গ্যাস ট্যাবলেট (কীটনাশক জাতীয় ট্যাবলেট) এক কলেজছাত্রী আত্মহত্যা করেছেন।

নিহত কামনা (১৮) উপজেলার মাঝিড়াপাড়ার বাবুল হোসেনের মেয়ে এবং পল্লী উন্নয়ন একাডেমী ল্যাবরেটরি স্কুল অ্যান্ড কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রী।

রোববার (৪ নভেম্বর) রাতে গ্যাস ট্যাবলেট খাওয়ার পর কামনাকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার দুপুর ১২টার দিকে তার মৃত্যু হয়। কিন্তু কামনা গ্যাস ট্যাবলেট কীভাবে পেল তা তার পরিবারের কেউ জানে না।

কামনার বড়বোন জানান, রোববার বাড়ির পাশে প্রতিবেশীদের সঙ্গে কামনার ঝগড়া হয়। তারপর তিনি কলেজে যাওয়ার প্রস্তুতি নিলে খেতে বলা হয়। কিন্তু তিনি না খেয়ে কলেজে যান। কলেজ থেকে ফিরেও কিছু না খেয়ে ঘরে শুয়ে থাকেন। এক সময় শব্দ শুনে ঘরে এসে দেখা যায় কামনা মেঝেতে পড়ে আছে। সঙ্গে সঙ্গে তাকে স্থানীয় ক্লিনিকে ভর্তি করানো যায়নি। পরে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুরে কামনা মারা যান।

নিহতের প্রতিবেশীরা জানান, এক-দেড় মাস আগে কামনা কলেজে যাওয়ার কথা বলে অজ্ঞাত পরিচয় এক ছেলের সঙ্গে পালিয়ে যান। পরে অভিভাবকরা পুলিশের সহায়তায় ঢাকা থেকে কামনাকে ফিরিয়ে নিয়ে আসেন। এ নিয়ে কামনা মানসিকভাবে হতাশাগ্রস্ত ছিলেন।

শাজাহানপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজিম উদ্দীন জানান, এ ঘটনায় থানায় ইউডি মামলা দায়েরের পর লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

এডুকেশন/কেআর

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর