সোমবার ২১ অক্টোবর, ২০১৯ ৩:৩২ এএম


গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রীর নিরাপত্তা পুলিশকে লাথি-ঘুষি ছাত্রলীগকর্মীর

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১০:০০, ৭ অক্টোবর ২০১৯  

 

কুড়িগ্রামের রৌমারীতে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেনের বাসায় নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা আবু সায়েম নামে পুলিশের এক কনস্টেবলকে মারধরের ঘটনা ঘটেছে। মন্ত্রী তাঁর বাসা থেকে দুস্থ হিন্দু পরিবারের মধ্যে ত্রাণসামগ্রী ও কাপড় বিতরণের সময় হট্টগোলের সৃষ্টি হলে নাজমুল হাসান জুয়েল নামের এক ছাত্রলীগকর্মী আবু সায়েমের কলার ধরে কিল-ঘুষি ও লাথি মেরে আহত করেন। গতকাল রবিবার বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে রৌমারী গ্রামে প্রতিমন্ত্রীর বাসার সামনে এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার পরপরই প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন রাগান্বিত হয়ে ছাত্রলীগের ওই কর্মীকে চড়-থাপ্পর মেরে মীমাংসার চেষ্টা করেন। কিন্তু আবু সায়েম থানায় চলে গিয়ে ওসির কাছে বিচার চান। এ অবস্থায় ওসি আবু সায়েমকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য পাঠিয়ে দেন। হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে আবু সায়েম বাসায় ফিরে যান।

আবু সায়েম বলেন, ‘আমরা চারজন পুলিশ সরকারি দায়িত্ব পালন করছিলাম। মন্ত্রী স্যার কাপড় ও ত্রাণ সহায়তা দিচ্ছিলেন। অনেক মানুষ উপস্থিত হওয়ায় হট্টগোলের সৃষ্টি হলে জুয়েল নামের ওই ছেলেটা আমাদের গালাগাল করতে থাকেন। গালি দিচ্ছেন কেন জিজ্ঞেস করতেই আমার কলার ধরে কিলু-ঘষি ও লাথি মারেন। পরে মন্ত্রী স্যার এসে তাঁকে ধমক দিয়ে চড়-থাপ্পর মেরে দুঃখ প্রকাশ করেন।’ এদিকে প্রতিমন্ত্রীর নিরাপত্তার দায়িত্ব পালনকারী পুলিশ সদস্যকে মারধরের ঘটনায় থানার পুলিশ সদস্যদের মধ্যে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

এ বিষয়ে প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, ‘ঘটনার পরপরই আমি তাঁকে (জুয়েলকে) থাপ্পর মেরে বাসা থেকে বের করে দিয়েছি। হঠাৎ করেই ঘটনাটি ঘটেছে। পুলিশের গায়ে হাত দিয়ে সে অন্যায় করেছে।’

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর