সোমবার ৩০ মার্চ, ২০২০ ১১:৫২ এএম


ক্যাম্পাসের অভ্যন্তরে বহিরাগতদের হয়রানি,নিরাপত্তা জোরদার দাবি

সজীব বণিক

প্রকাশিত: ১২:০৩, ১৩ মার্চ ২০২০  

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রীকে বহিরাগত দ্বারা হয়রানির অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহন মাঠে এ ঘটনা ঘটে। এ বিষয়ে বিচার চেয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরের কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন হয়রানির শিকার হওয়া ওই ছাত্রী।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, শহর থেকে ছেড়ে আসা সকাল ৮টার বাস ক্যাম্পাসে আসার পর ভুল করে মোবাইল ফোনটি বাসে রেখে নেমে যান তিনি।

পরে আবার বাসে উঠে মোবাইলটি নিয়ে নামার সময় এক ছেলে তার হাত ধরে টান দেয় এবং টেনেহিঁচড়ে জোর করে আবার বাসে তুলে হয়রানির চেষ্টা করে। একপর্যায়ে ছেলেটিকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে ওই ছাত্রী সহপাঠীদের কল দেন। তবে অন্যরা আসার আগেই ওই ছেলে পালিয়ে যায়।তবে নিজেকে বাঁচাতে গিয়ে হয়রানির শিকার হওয়া ছাত্রী মাথায় প্রচ- আঘাত পান।
হয়রানি করা ছেলেটি সম্পর্কে জানতে চাইলে ওই ছাত্রী বলেন, ‘ছেলেটির পোশাক-আশাকে টোকাই বলে মনে হয়েছে।

এদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যন্তরে বহিরাগত দ্বারা ছাত্রী হয়রানির কারণে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন গ্রুপে স্যোশাল মাধ্যমে ক্যাম্পাসে নিরাপত্তা জোরদারে প্রশাসনের নিকট দাবি জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকজন শিক্ষার্থীদের সাথে কথা বলে জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন নিরাপত্তা জোরদারে সোচ্চার নয় বলে বহিরাগতদের আনাগোনা বেশী থাকে ক্যাম্পাসে। বহিরাগতদের বিষয়ে যদি প্রশাসন এখনও নির্লিপ্ত থাকেন তাহলে ক্যাম্পাসে একের পর এক হয়রানির শিকার হবে শিক্ষার্থীরা।

অভিযোগের বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. কাজী মোহাম্মদ কামালউদ্দিন বলেন, ‘লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। ওই ছাত্রী মানসিক ও শারীরিকভাবে অসুস্থ থাকায় বেশি তথ্য নিতে পারিনি। তদন্ত করে এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এডুকেশন বাংলা/এজেড

 

সব খবর
এই বিভাগের আরো খবর